টিকটকার অপুর জামিন নাকচ, থাকতে হচ্ছে কারাগারেই

টিকটকার অপুর জামিন নাকচ, থাকতে হচ্ছে কারাগারেই
ইয়াছিন আরাফাত অপুর গ্রেফতারের আগে ও পরের ছবি

সড়কে পথচারীকে মারধরের মামলায় টিকটক ভিডিও নির্মাতা ইয়াসীন আরাফাত অপু ওরফে অপু ভাইয়ের জামিন নাকচ করে দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোর্শেদ আল মামুন ভূঁইয়া এ আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) মোহাম্মদ জালাল। তিনি বলেন, ‘আজ আদালতে টিকটকার অপু জামিনের আবেদন করলে, আদালত শুনানি শেষে তার জামিনের আবেদন নাকচ করে দেন। ফলে তাকে এখন কারাগারেই থাকতে হচ্ছে। এরআগে গত ৩ আগস্ট টিকটকার অপুকে গ্রেফতার করে উত্তরা পূর্ব থানা পুলিশ। সে সময় গ্রেফতার করা হয় তার এক সহযোগী নাজমুলকেও।

গত ৪ আগস্ট ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজিজ তালুকদার ৩ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। কিন্তু ওই দিন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বেগম মাহমুদা আক্তার রিমান্ডের আবেদন নাকচ করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

নথি থেকে জানা যায়, গত রবিবার উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টরের আলাওল অ্যাভিনিউয়ের রাস্তা দখল করে টিকটক অপু ও তার বেশ কয়েকজন সহযোগী আড্ডা দিচ্ছিলেন। সে সময় মেহেদী হাসান নামের এক ব্যক্তি ও তার বন্ধুরা গাড়ি নিয়ে ওই সড়ক ধরে যাচ্ছিলেন। সে সময় মেহেদী রাস্তা ছাড়তে হর্ন দেন। কেন হর্ন দেওয়া হলো তা নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে।

পরে অপু ও তার সহযোগীরা মিলে মেহেদী হাসান ও তার বন্ধুদের মারধর করেন। মারধরের ঘটনার সময় মেহেদী হাসানদের মুঠোফোনও ছিনতাই করা হয় বলে মামলায় উল্লেখ আছে।

পরদিন অর্থাৎ গত সোমবার দুপুরে ভুক্তভোগীর বাবা এসএম মাহবুব আলম বাদী হয়ে মারামারি ও ছিনতাইয়ের অভিযোগ এনে উত্তরা পূর্ব থানায় আটজনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৩০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় অপু ও সহযোগী নাজমুলকে উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টরের আলাওল অ্যাভিনিউয়ের ১২ নম্বর বাড়ির পাশের সড়ক থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

টিকটকার অপুর গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি। অপু বর্তমানে দক্ষিণখান এলাকার একটি বাসায় থাকত।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত