শিশু হত্যায় পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড 

শিশু হত্যায় পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড 
জয়পুরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালত। ছবি: ইত্তেফাক

পাঁচবিবি উপজেলার রশিদপুর গ্রামে আড়াই বছরের শিশু আরাধাকে অপহরণের পর হত্যা মামলার রায়ে ৫ আসামিকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেছে আদালত।

সোমবার দুপুরে জয়পুরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রুস্তম আলী এ রায় প্রদান করেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- উত্তম কুমার সরকার (২৯), বিরেন চন্দ্র বর্মন বিরেশ (৩৮), সন্তেষ সরকার টেপলু (২৮) , মোস্তাফিজুর রহমান রাব্বু (৩৮) ও ওবাইদুল ইসলাম (২৬)। মৃত্যু নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত আসামিদের মৃত্যুদণ্ডের রজ্জুতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার নির্দেশনা প্রদান করে আদালত।

আদালত সূত্র জানায়, প্রথমে অপহরণ মামলায় ২০০০ ( সংশোধনী ২০০৩) এর ৭ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে ৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেকের ৩ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ বছরের কারাদণ্ড প্রদানের আদেশ দেন আদালত। দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে একই আসামিদের মৃত্যুদণ্ড প্রদান ও জামিনে গিয়ে পলাতক থাকায় উত্তম কুমার সরকারকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং অন্য চারজনের ৩ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন বছরের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

২০১৫ সালের ১২ ডিসেম্বর সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা আড়াই বছরের শিশু আরাধাকে বাড়ির পাশে খেলাধুলা করার সময় অপহরণ করে হত্যা করে। এ ঘটনায় পিতা পরেশ চন্দ্র বর্মন বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে।

গ্রেফতার কৃতদের মধ্যে উত্তম কুমার, বিরেন চন্দ্র ও ওবায়দুল ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দেয়। ২০১৬ সালের ১০ মার্চ আদালতে সাজাপ্রাপ্ত ৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা। মামলায় আদালত ১৯ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ ও দীর্ঘ শুনানি শেষে সোমবার এ রায় প্রদান করেন।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত