সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা ও সুরঞ্জিত সেনকে হত্যাচেষ্টা মামলা 

আদালতে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবর ও সিসিক মেয়র আরিফ  

আদালতে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবর ও সিসিক মেয়র আরিফ  
স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ ১০ জনকে আদালতে হাজির করা হয়। ছবি : আব্দুল বাতিন ফয়সাল

সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা এবং আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তকে হত্যাচেষ্টা মামলায় বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ ১০ জনকে আদালতে তোলা হয়|

দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে চলা এ মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে সিলেটের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল আদালতে তাদেরকে হাজির করা হয়। এর আগে আদালত চত্বরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করে পুলিশ।

২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বৈদ্যের বাজারে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভা শেষে ফেরার পথে দুর্বৃত্তদের গ্রেনেড হামলায় নিহত হন সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া, তার ভাতিজা শাহ মঞ্জুর হুদাসহ ৫ জন। এ ঘটনায় আহত হন ৭০ জন।

এ ঘটনায় ওই এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট মো. আব্দুল মজিদ খান বাদি হয়ে সদর থানায় হত্যা এবং বিস্ফোরক আইনে পৃথক দুটি মামলা করেন। এ হত্যা মামলায় ১০ জনকে আসামি করা হয়। পরে ২০১১ সালে তদন্তের প্রেক্ষিতে আরও ২৬ জনকে আসামি করা হয়। পরে তৃতীয় দফায় সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লুৎফর জামান বাবর, বিএনপি নেতা হারিছ চৌধুরী ও সিলেটের সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ প্রায় ৩৫ জনকে আসামি করা হয়। এর মধ্যে দুজন মারা গেছেন।

অন্যদিকে ২০০৪ সালের ২১ জুন দিরাইয়ে আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের সমাবেশে ওপর গ্রেনেড হামলায় দুটি মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। মামলাটি সিলেট দ্রুত বিচার আদালতে বিচারাধীন।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত