স্ত্রী হত্যায় স্বামীর সঙ্গে দুই বন্ধুর ফাঁসি বহাল রাখল আপিল বিভাগ

স্ত্রী হত্যায় স্বামীর সঙ্গে দুই বন্ধুর ফাঁসি বহাল রাখল আপিল বিভাগ
প্রতীকী ছবি।

স্ত্রী হত্যা মামলায় স্বামীর পর তার বন্ধু খোরশেদের মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখেছে আপিল বিভাগ। ফাঁসির রায় বাতিল চেয়ে আসামির করা আপিল খারিজ করে এ রায় দেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের তিন বিচারপতির বেঞ্চ।

এ রায়ের ফলে নিহত নাসিমা আক্তারের স্বামী সৈয়দ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ওরফে টিপু ও তার দুই বন্ধু শহীদুল ইসলাম ও খোরশেদের মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। এর আগে গত ৭ অক্টোবর টিপু ও শহীদুলের ফাঁসি বহালের রায় দেয় আপিল বিভাগ। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিত দেবনাথ ও আসামি পক্ষে হেলালউদ্দীন মোল্লা শুনানি করেন।

বিশ্বজিত দেবনাথ জানান, আসামিদের দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রয়েছে। আর হত্যাকান্ডটি ছিলো নির্মম প্রকৃতির। আদালত অপরাধের গুরুত্ব বিবেচনায় নিয়ে আসামিদের মৃত্যুদন্ডাদেশ বহাল রেখেছেন। দণ্ডিতরা সকলেই কনডেম সেলে রয়েছেন।

আরো পড়ুনঃ মানসিক স্বাস্থ্য ইন্সটিটিউটের রেজিস্ট্রার রিমান্ডে

প্রসঙ্গত ২০০০ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ওয়েল ফার্ম গার্মেন্টসের কর্মী অন্তঃসত্ত্বা নাসিমা আক্তারকে নিয়ে তার স্বামী টিপু জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘুরতে যান। তাদের সঙ্গে টিপুর দুই বন্ধু শহীদুল ও খোরশেদ ছিলো। ঘোরাঘুরি এক পর্যায়ে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী টিপু তার স্ত্রীকে ভাসানী হলের পেছনে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে পেটে ছুরিকাঘাত করে নাসিমাকে হত্যা করেন আসামিরা। হত্যার পর নাসিমার দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয়।

বিচারিক আদালতের এই রায় ২০১২ সালে বহাল রাখে হাইকোর্ট। এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন আসামিরা। সেই আপিল খারিজ করে ফাঁসি বহাল রাখে আপিল বিভাগ।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত