সিলেট-৩ আসনের নির্বাচন স্থগিত চেয়ে সিইসিকে আইনি নোটিশ

সিলেট-৩ আসনের নির্বাচন স্থগিত চেয়ে সিইসিকে আইনি নোটিশ
ফাইল ছবি

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন স্থগিতের নির্দেশনা চেয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদাকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ আইনজীবী। সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ আইনজীবীর পক্ষে ইমেইলে নোটিশটি পাঠান আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির।

এনআইডি সেবা টেবিল-চেয়ার নয় যে উঠিয়ে নিয়ে গেল: সিইসি

গতকাল রবিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে পাঠানো নোটিশে বলা হয়, ২৮ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য উপনির্বাচন স্থগিত করা যাবে না, এই বক্তব্য আইনের সঠিক ব্যাখ্যা নয়। কেননা এ সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানের কোনো সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা নেই। নির্বাচন কমিশনের উচিত চলমান করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বিবেচনায় নিয়ে লকডাউনের সময় নির্বাচন না করা এবং ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে অন্য যে কোনো দিন ভোটগ্রহণের দিন নির্ধারণ করা। তাছাড়া ৩ লাখ ৫২ হাজার ভোটারের এই নির্বাচন অনুষ্ঠান সরকারের লকডাউন নীতিরও বিরোধী। তাই করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধি বিবেচনায় নিয়ে ২৮ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন স্থগিত করার অনুরোধ জানাচ্ছি। অন্যথায় আমরা উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হতে বাধ্য হবো—বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়। নোটিশদাতা পাঁচ আইনজীবী হলেন মো. মুজাহিদুল ইসলাম, আল রেজা মো. আমির, মো. জোবায়দুর রহমান, মো. জহিরুল ইসলাম এবং মুস্তাফিজুর রহমান।

হাইকোর্টের ৪১ বেঞ্চ বসবে আজ, চলবে নিম্ন আদালতের বিচার কাজ

গত শনিবার সিলেটে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‌‘সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার ফলে সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই।’

গত ১১ মার্চ সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর একটি হাসপাতালে মারা গেলে আসনটি শূন্য হয়। নির্বাচন কমিশনের তপশিল অনুযায়ী ১৪ জুলাই এই আসনে উপনির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। পরে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির অবনতির কারণে নির্বাচন পিছিয়ে ২৮ জুলাই করা হয়।

ইত্তেফাক/কেকে

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x