ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬
২৮ °সে


বরগুনায় হত্যা: আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পদক্ষেপ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট

বরগুনায় হত্যা: আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পদক্ষেপ জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট
ছবি: সংগৃহীত

প্রকাশ্যে সড়কে স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কী পদক্ষেপ নিয়েছে তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার মধ্যে বরগুনার ডিসি ও এসপির কাছ থেকে এ বিষয়ে জেনে হাইকোর্টকে অবহিত করতে বলা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাসারকে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ স্বপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দেন। বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এ হত্যাকাণ্ডের প্রকাশিত প্রতিবেদন সকালে হাইকোর্টের নজরে আনেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দিনেদুপুরে মানুষজনের উপস্থিতিতে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে শাহ নেয়াজ রিফাত শরীফকে (২৫) কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এই হামলার ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

নয়ন বন্ডের নেতৃত্বে ৪-৫ জন সন্ত্রাসী রিফাতকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায়। এ সময় বারবার সন্ত্রাসীদের হাত থেকে স্বামীকে বাঁচাতে চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি।

নিহত রিফাত বরগুনার বুড়িরচর ইউনিয়নের মাইঠা গ্রামের দুলাল শরীফের ছেলে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় বরগুনা থানায় রিফাতের বাবা হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, দুজন রামদা হাতে রিফাতকে একের পর এক আঘাত করে চলছেন। এসময় রিফাতের স্ত্রী হামলাকারীদের হাত থেকে স্বামীকে বাঁচানোর চেষ্টা করেও পারছিলেন না। রিফাতকে বাঁচানোর জন্য তার স্ত্রী চিৎকার করলেও আশপাশের কেউ এগিয়ে আসেনি। হামলাকারী যুবকরা রিফাতকে রক্তাক্ত করে সবার সামনে দিয়েই চলে যায়।

পরে স্থানীয়রা রিফাতকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ সময় তার রক্তক্ষরণ বন্ধ না হওয়ায় চিকিৎসক বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে নেওয়ার পথে বিকাল ৪টার দিকে রিফাতের মৃত্যু হয়।

এলাকাবাসী বলছে, হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িতে নয়ন এলাকায় দাপটের সঙ্গে চলতেন। তিনি বন্ড নামে একটি গ্রুপ তৈরি করেছেন। তার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

বরগুনা থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন জানান, নয়ন স্থানীয় কলেজছাত্রী মিন্নিকে ভালোবাসতেন। দুই মাস আগে ওই ছাত্রীর সঙ্গে রিফাত শরীফের বিয়ে হয়। তারপরও নয়ন ওই ছাত্রীকে নিজের স্ত্রী দাবি করে আসছিলেন। এ বিরোধকে কেন্দ্র করে বুধবার রিফাত শরীফের উপর হামলা চালায় নয়নসহ একদল যুবক

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৭ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন