বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বুধবার, ১২ আগস্ট ২০২০, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭
৩০ °সে

জার্মানিতে ১০ বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

জার্মানিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬৫ হাজার ৪২১ জন, সুস্থ ১৬ হাজার ১০০ জন, মারা গেছে ৬৬১ জন।
জার্মানিতে ১০ বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত
ছবি: সংগৃহীত

জার্মানিতে অন্তত ১০ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে রাজধানী বার্লিনে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস। দূতাবাসের পক্ষ থেকে জার্মানিতে অবস্থানরত সব বাংলাদেশিকে সাবধানে ও নিরাপদে থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে। বার্লিনে বাংলাদেশ দূতাবাস খোলা রয়েছে ।

মঙ্গলবার জার্মানিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ইমতিয়াজ আহমেদ বলেন, মোট ১০ জন বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এবং তারা হাসপাতালে অবস্থান করছেন। তবে বার্লিন ও ক্রেফেল্ডে দুই বাংলাদেশি আইসিইউতে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। এখানে বাংলাদেশি যারা করোনা আক্রান্ত তাদের অনেকের সাথেই দূতাবাসের কর্মকর্তারা কথা বলছেন এবং সব সময় যোগাযোগ রাখছেন ।

প্রবাসীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে রাষ্ট্রদূত ইমতিয়াজ আহমেদ বলেছেন, কোনো বাংলাদেশি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে তা যেন বাংলাদেশ দূতাবাসকে জানানো হয়। এই কঠিন সময়ে সংহতির নিদর্শনস্বরূপ জার্মানি বেশ কিছু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিকে চিকিৎসার জন্য ইতালি ও ফ্রান্স থেকে নিয়ে আসছে। কয়েক দিন ধরে বিশেষ বিমানে করে তাদের জার্মানির বিভিন্ন শহরে আনা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: বাকিবিতণ্ডা থেকে রণক্ষেত্র, আপন দুই ভাইকে গলাকেটে হত্যা

রাজধানী বার্লিনের মেয়র মিশায়েল মুলার জানিয়েছেন, গত শনি ও রবিবার তিনটি বিশেষ বিমানে ফ্রান্সের স্টাসবুর্গ শহর থেকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য বার্লিনে আনা হয়েছে। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর জনগণের প্রতি সহানুভূতি ও সহমর্মিতা দেখানোর এখনই প্রকৃত সময়। তিনি ইতালি থেকেও করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের বার্লিনে আনবেন বলে জানিয়েছেন। ইতিমধ্যে ইতালি থেকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের মিউনিখ, কোলন, হামবুর্গে আনা হয়েছে।

জার্মানির চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল এক বিবৃতিতে এই সংকটকালে সবাইকে ধৈর্য ধরতে অনুরোধ করেছেন। চ্যান্সেলর অফিসের একজন মুখপাত্র হেলগে ব্রাউন জানিয়েছেন, আগামী ২০ এপ্রিলের আগে জার্মানিতে লকডাউন-সংক্রান্ত বিধিনিষেধ শিথিল করবার কোনো সম্ভাবনা নেই।

ইত্তেফাক/এসি

ঘটনা পরিক্রমা : করোনা ভাইরাস

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত