ঢাকা সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
৩০ °সে

অটোয়ায় করোনায় মারা গেলেন প্রথম বাংলাদেশি শরিয়ত

অটোয়ায় করোনায় মারা গেলেন প্রথম বাংলাদেশি শরিয়ত
প্রতীকী ছবি

কানাডার রাজধানী অটোয়ায় করোনায় আক্তান্ত হয়ে মারা গেলেন প্রথম এক বাংলাদেশ। হাজী শরিয়ত উল্লাহ নামের এই ব্যক্তি ৪ এপ্রিল কুইন্স কালটন হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন (ইন্নানিল্লাহে ... রাজিউন)।

এর আগে গতরাতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পরিবারকে অবগত করেন যে, শরিয়ত উল্লাহর কিডনি ফেল করেছে। ৫৩ বয়স বয়স্ক শরিয়ত স্ত্রী, দুই মেয়ে এবং এক ছেলে রেখে যান। এছাড়াও অটোয়া এবং মন্ট্রিয়লে তার দুই ভাই আতিকুল্লাহ এবং সিরাজুদ্দোলাহ থাকেন।

জানা গেছে, গত ২৭ মার্চ তারিখে অসুস্থ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি স্থানীয় পাপাইয়া রেস্টুরেন্টে কর্মরত অবস্থায় আক্রান্ত হন বলে শরিয়ত উল্লাহ মনে করেন। তার বড় ভাই আতিকুল্লাহ ইত্তেফাককে জানান, গত ২৪ মার্চ দেশের বাড়িতে মা মারা যান এবং গত দশ দিনে আরো দুই নিকটতম আত্মীয় ইন্তেকাল করলেন। ফলে তারা পারিবারিক ভাবে বিপর্যস্ত!

অপর দিকে অটোয়া বাংলাদেশ ফিনারেল এন্ড অয়েল ফেয়ার সার্ভিসের অন্যতম পরিচালক জামালী জানান যে, অটোয়ায়া মুসলিম এসোসিয়েশনের তত্ত্বাবধানে তাদের সংগঠন সরকারি অনুমতি নিয়ে সংক্ষিপ্ত আকারে জানাজা পরার পর রাজধানীর পাশে মেনোটিস্থ ওটোয়া মুসলিম সেমিট্রতে মরহুমের দাফন করা হবে।

শরিয়ত উল্লাহর মৃত্যুতে কানাডার বাঙালিদের মধ্যে গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে। এদিকে টরন্টোতে বীর মুক্তিযোদ্ধা সালাম শরিফ অসুস্থ হয়ে মাইকেল গ্যারন হসপিটালের আই সি ইউতে আছেন।

উল্লেখ্য, কানাডায় এ পর্যন্ত আরো ২,৫৯৫ জন সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন। তাদের মধ্যে টরন্টো এবং মন্ট্রিয়লের বেশ ক’জন বাংলাদেশিও রয়েছেন। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কানাডায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৩,৯১২ আর মৃত্যু বরণ করেছে ২৩১ জন।

ইত্তেফাক/এমআরএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
০১ জুন, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন