বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭
৩০ °সে

কুড়িগ্রামে আরও ৪৩ করোনা রোগী শনাক্ত

কুড়িগ্রামে আরও ৪৩ করোনা রোগী শনাক্ত
[করোনা ভাইরাসের প্রতীকী ছবি]

কুড়িগ্রামে একদিনে ৪৯ জন করোনা পজেটিভ শনাক্ত হওয়াসহ মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২০৬ জন। নমুনার ফলাফল আসার আগেই ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। সময়মত নমুনা পরীক্ষার ফলাফল না আসায় জটিলতা বাড়ছে।

শনিবার (০৪ জুলাই) একদিনে প্রাপ্ত ফলাফলে ৪৯ জন করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমান জানান, গত ১৫জুন থেকে ২৬জুন পর্যন্ত সংগৃহীত ৩৯৬টি নমুনার প্রকাশিত ফলাফলে ৩৪৩ জনের নেগেটিভ এসেছে এবং ৪ জন ফলোআপ রোগীর পজেটিভ এসেছে।

কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, কুড়িগ্রাম জেলায় এ পর্যন্ত তিন হাজার ১৮৪ জনের স্যাম্পল সংগ্রহ করে রংপুর পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। এ পর্যন্ত ২ হাজার ৭৭৯ জনের ফলাফল পাওয়া গেছে। এর মধ্যে কোভিট-১৯ পজেটিভ হয়েছে ২০৬জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৯৬ জন। বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১০৬জন। আইসোলেশনে ২জন। এখন পর্যন্ত ৪০৫টি নমুনার ফলাফল পাওয়া যায়নি।

সাবেক সিভিল সার্জন ডা. এস এম আমিনুল ইসলাম জানান, কুড়িগ্রাম জেলার করোনা পরিস্থিতি ক্রমেই ভয়াবহতার দিকে যাচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জরুরী ভিত্তিতে সদর হাসপাতালে পি সি আর ল্যাব স্থাপন জরুরী। সংগৃহীত স্যাম্পলে’র ফলাফল দীর্ঘদিন পর আসার কারণে তার আগেই এসব রোগী অনেকের মাঝে ভাইরাস ছড়িয়ে দিচ্ছে। কেউ কেউ ফলাফল আসার আগেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন। মূলত নমুনা সংগ্রহের দিন থেকে কঠোরভাবে স্বাস্থ্য বিধি মেনে না চলায় পরিস্থিতি ভয়াবহের দিকে যাচ্ছে।

কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমান জানান, রংপুর পিসিআর ল্যাব থেকে শনিবার কোভিড-১৯ আক্রান্তের খবর মিলেছে ৪৯ জনের। এরমধ্যে ২ জনের ফলাফল আসার আগেই মৃত্যু হয়েছে। ১৫জুন থেকে ২৬জুন পর্যন্ত সংগ্রহীত মোট ৩৯৬টি নমুনার আসা ফলাফলের মধ্যে ৩৪৩ জনের নেগেটিভ এবং ফলোআপ ৪ জনের পজেটিভ রেজাল্ট পাওয়া গেছে। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত ৩ জনের মধ্যে কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার একজন নারী এবং চিলমারী উপজেলার ২ জন পুরুষ।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত