বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭
৩০ °সে

বিশেষ ফ্লাইটে ইতালি যাওয়া ২৯ প্রবাসীর করোনা শনাক্ত, ঢাকার সঙ্গে সকল ফ্লাইট বাতিল

বিশেষ ফ্লাইটে ইতালি যাওয়া ২৯ প্রবাসীর করোনা শনাক্ত, ঢাকার সঙ্গে সকল ফ্লাইট বাতিল
ইতালির হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রবাসী বাংলাদেশি। ছবি: ইত্তেফাক

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা থেকে রোমে যাওয়া ২৯ জন যাত্রীর শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। সোমবার বিকালে দেশটির রাজধানী রোমের ফিউমিচিনো বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি পৌঁছানোর পর বিমানের ২২৫ জন যাত্রীকে করোনা পরীক্ষা করা হলে ২৯ জনের শরীরে এ ভাইরাস ধরা পরে। এরপরেই দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী রবের্তো স্পেরান্সার নির্দেশে ঢাকার সঙ্গে সকল ফ্লাইট বাতিলের ঘোষণা দেওয়া হয়।

এবিষয়ে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী রবের্তো স্পেরান্সা স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ‘গতকাল ২২৫ জন যাত্রী নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিশেষ ফ্লাইট ঢাকা থেকে রোমে আসে। লাতসিওর কাউন্সিলরের নির্দেশে ওই ফ্লাইটের সকল যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা করা হলে ২৯ যাত্রীর শরীরে করোনা ভাইরাস ধরা পরে। এমতাবস্থায় দেশটির সঙ্গে আমাদের ফ্লাইট বন্ধ করা ছাড়া কোনো উপায় নেই’।

এছাড়াও লাতসিওর কাউন্সিলর আলেসসিও দি আমাতো দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুইজি দি মায়িওর বরাত দিতে বলেন, ‘প্রথমাবস্থায় আমরা এক সপ্তাহের জন্য ঢাকার সাথে সকল ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এরমধ্যে যদি দেশটির সরকার তাদের ইমিগ্রেশন সিস্টেম নিয়ে আমাদের নিশ্চয়তা প্রদান করে তাহলে আমরা আবার তাদের সাথে ফ্লাইট চালু করব’।

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘গতকাল ঢাকা থেকে একটি বোমবাহী(করোনারোগী) বিমান রোমে এসে পৌঁছেছে। আমরা সফলতার সাথে সেই বোমা নিষ্ক্রিয় করতে পেয়েছি’।

বর্তমানে কররনায় আক্রান্ত ওই যাত্রীদের দেশটির বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে । এছাড়াও অন্য যাত্রীদের মধ্যে কয়েকজনকে নিকতবর্তী একটি হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। আর বাকিদের নিজনিজ বাসায় দুই সপ্তাহের জন্য হোমকোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এছাড়াও পহেলা জুন থেকে দেশটিতে যাওয়া সকল বাংলাদেশীদের পর্যায়ক্রমে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়।

এদিকে ঢাকার সাথে ফ্লাইট বন্ধ করায় বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশে অবস্থানরত কয়েকহাজার ইতালি প্রবাসী। তারা বলছেন, বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে সরকারের গাফলতিতে আজ ইতালি সরকার আমাদের সাথে ফ্লাইট বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে। আমাদের সরকার যদি বিমানবন্দরে নিরাপত্তা জোরদার করত এবং সকল যাত্রীকে ইমিগ্রেশনের সঠিকভাবে পরীক্ষা করার ব্যবস্থা করত তাহলে আজ আমাদের এ ভোগান্তিতে পড়তে হতনা।

তবে ফ্লাইট বন্ধ করায় দেশটির সরকারের প্রশংসা করছেন ইতালিয়ান নাগরিকেরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতালিয়ানরা তাদের সরকারের এ সিদ্ধান্তকে সময় উপযোগী সঠিক সিদ্ধান্ত বলে ব্যাখ্যা করছেন। তারা বলছেন, অন্য দেশ থেকে কেন আমরা করোনা রোগী এনে এদেশে চিকিৎসা দেব। যতদিন না দেশটির পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে ততদিন সরকারের এ সিদ্ধান্ত বহাল রাখা উচিত।

ইত্তেফাক/এসি

ঘটনা পরিক্রমা : করোনা ভাইরাস

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত