ঢাকা শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬
২৯ °সে


শীর্ষে নিউজিল্যান্ড, বিদায় আফ্রিকার

শীর্ষে নিউজিল্যান্ড, বিদায় আফ্রিকার
ছবি : সংগৃহীত

অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের দৃঢ়তায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই শেষে দক্ষিণ আফ্রিকাকে চার উইকেটে হারিয়ে আবারো পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করেছে নিউজিল্যান্ড। অন্যদিকে সেমিফাইনালের স্বপ্ন শেষ হয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকার।

এই জয়ের ফলে পাঁচ ম্যাচ থেকে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে কিউইরা। বৃষ্টির কারণে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে বাধ্য হয় দলটি। ৬ ম্যাচ থেকে এক জয়ে আফ্রিকার পয়েন্ট মাত্র ৩। বাকি ম্যাচগুলো জিতলেও সেমি ফাইনালে যাওয়া হবে না তাদের।

এর আগে আজ বুধবার বার্মিংহ্যামের এজবাস্টনে টস দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটে পাঠান নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৪৯ ওভার শেষে ৬ উইকেটে ২৪১ রান করে প্রোটিয়ারা। দেড় ঘণ্টা পর খেলা শুরু হওয়ায় এক ওভার কমিয়ে ৪৯ ওভারে নির্ধারিত হয় ম্যাচ। শুরুতে ব্যাট হাতে নেমে দলীয় ৯ রানেই ফিরে যান কুইন্টন ডি কক। এরপর হাশিম আমলা, ফাফ ডু প্লেসিস ও এইডেন মার্করাম তিনজনই খুব ধীরগতির ব্যাটিং করেন। আমলা ৮৩ বলে ৫৫ রান করেন। আর মাক্রাম ৫৫ বলে ৩৮ ও প্লেসিস ৩৫ বলে ২৩ রান করেন। শেষ দিকে ডেভিড মিলার ও ভেন দার দুসেন কিছুটা মেরে খেলার চেষ্টা করেন। মিলার ৩৭ বল থেকে ৩৬ ও দুসেন ৬৪ বল থেকে অপরাজিত ৬৭ রান করেন। সেই সুবাদে প্রতিপক্ষকে ২৪২ রানের লক্ষ্য ছুঁরে দিতে সক্ষম হয় দক্ষিণ আফ্রিকা।

জবাবে খেলতে নেমে ১২ রানের মাথায় প্রথম উইকেটের পতন হয় নিউজিল্যান্ডের। ব্যক্তিগত ৯ রানের রাবাদার বলে কট এন্ড বোল্ড হন এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে গাপটিল ও কেন উইলিয়ামসন মিলে ৬০ রানের জুটি গড়ে দলকে নিয়ে যান সুবিধাজনক স্থানে। মাঝখানে ক্রিস মরিস তিনটি উইকেট তুলে নিলে কিছুটা বিপাকে পড়ে কিউইরা। দলীয় ১৩৭ রানে পঞ্চম উইকেটের পতন হয় তাদের। এরপর কলিন ডি গ্রান্ডহোমকে সাথে নিয়ে কোনো বিপত্তি ছাড়ায় দলকে জয়ের কাছাকাছি নিয়ে যান কেন উইলিয়ামসন। জয় থেকে ১৪ রান দূরে থাকতে আউট হন গ্রান্ডহোম। পরে স্যান্টনারকে সঙ্গে করে দলকে জয় এনে দেন অধিনায়ক। ব্যক্তিগত ১০৩ রানে অপরাজিত ইনিংস খেলেন এই ব্যাটসম্যান।

 

ইত্তেফাক/এএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২০ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন