এই পরাজয় মেনে নেয়া কঠিন: উইলিয়ামসন

প্রকাশ : ১৫ জুলাই ২০১৯, ২২:৩০ | অনলাইন সংস্করণ

  অনলাইন ডেস্ক

ছবি : সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন বলেছেন, বিশ্বকাপের ফাইনালে মর্মান্তিক পরাজয়টি ‘মেনে নেয়া কঠিন।’ নির্ধারিত ৫০ ওভারের ম্যাচে সমান রান হওয়ার পর সুপার ওভারেও সমান রান করে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। ফলে বাউন্ডারিতে এগিয়ে থাকার বদৌলতে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়।

নিউজিল্যান্ডের ৮ উইকেটে করা ২৪১ রানের জবাবে ইংল্যান্ডও ২৪১ রানে হারায় সবকটি উইকেট। ফলে টাই হয় ম্যাচ। এতে সুপার ওভারে গড়ায় ম্যাচ। সেখানেও নির্ধারিত ৬ বলে ১৫ রান করে সংগ্রহ করে প্রতিদ্বন্দ্বী দল দুটি। নিয়ম অনুযায়ী সুপার ওভারেও ফলাফল নিষ্পত্তি না হলে বাউন্ডারী এবং ওভার বাউন্ডারী গণনার বিধান রয়েছে। যার ভিত্তিতে স্বাগতিক দলের হাতে উঠে শিরোপা।

কিন্তু দলের মর্মান্তিক এই পরাজয়কে মেনে নিতে পারেননি উইলিয়ামসন। তবে এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলকে তিরস্কার করতেও অস্বীকৃতি জানান তিনি। কিউই অধিনায়ক বলেন, ‘তারা বাউন্ডারির বদৌলতে শিরোপা জয় করেছে। আবেগের দিক থেকে এটি মেনে নেয়া কঠিন। কারণ দুটি দলই কঠিন পরিশ্রম করেছে। আমরা সেরা প্রমাণের জন্য দুইবার সুযোগ পেয়েছি। কিন্তু ব্যর্থ হয়েছি। ফলে যা হবার তাই হয়েছে। শুরুতেই এই নিয়ম যুক্ত করা হয়েছে। তারাও সম্ভবত ভাবেনি তাদেরকে এই নিয়মের সাহায্য নিতে হবে।’

এখনো পর্যন্ত বিশ্বকাপের শিরোপা না পাওয়া নিউজিল্যান্ড ২০১৫ আসরেও ফাইনালে খেলেছে। কিন্তু সেবারও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে শিরোপা লাভে ব্যর্থ হয়। তবে এবারের ঘটনাটি উইলিয়ামসন ও তার দলকে বেশী আঘাত দিয়েছে। কারণ, তারা দুইবার ইংল্যান্ডকে হারানোর সুযোগ পেয়েছে। প্রথমবার নির্ধারিত ৫০ ওভারের লড়াইয়ে, এবং দ্বিতীয়বার সুপার ওভারে।

শিরোপা জিততে না পেরে হতাশ উইলিয়ামসন বলেন, ‘ফাইনালে পৌঁছানোর জন্য আমরা যথেষ্ঠ পরিশ্রম করেছি। এখানেও এগিয়ে যাবার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করেছি। আজ দুইবার সুযোগ পাওয়া সত্ত্বেও এইভাবে হারকে কোনভাবেই মেনে নিতে পারছিনা।’
কিউই অধিনায়ক বলেন, ‘ইংল্যান্ডও শিরোপা জয়ের দাবী রাখে। আমরা তাদের ছাড়িয়ে যেতে পারিনি।’
গ্রুপ পর্বে পাকিস্তানের সঙ্গে সমান পয়েন্ট লাভ করেও নেট রান রেটের ভিত্তিতে শেষ চারে খেলার সুযোগ পেয়েছিল নিউজিল্যান্ড। যে কারণে হিসেবের বাইরে থেকে সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল কালোটুপিধারীরা।
কিন্তু সেমি-ফাইনালে আপসেট ঘটিয়ে ভারতকে পরাজিত করে নিউজিল্যান্ড। প্রথমবারের মত শিরোপা জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে উঠা দলটি ফাইনালেও ইংল্যান্ডকে হারানোর সব ধরনের প্রচেষ্টা চালিয়েছে। লর্ডসে মাত্র ৩০ রানে বিদায় নিলেও অসাধারণ নেতৃত্ব ও ব্যাটে বলে দক্ষতার কারণে উইলিয়ামসনকেই মনোনীত করা হয় টুর্নামেন্ট সেরা হিসেবে।
কিউই অধিনায়ক বলেন, জয়ের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছানোর জন্য দলের এই প্রচেষ্টায় তিনি গর্বিত। তিনি বলেন, পরাজয়ের এই ব্যবধান একেবারেই নগণ্য। কিন্তু গোটা টুর্নামেন্ট জুড়ে দারুণ দক্ষতা দেখিয়ে দলকে এই পর্যায়ে আসার পর এমন হার দলের সবাইকে ব্যথিত করেছে।’ বাসস।

ইত্তেফাক/এএম