প্রথমবারের মতো দেশে ডিজিটাল ঋণ চালু

প্রথমবারের মতো দেশে ডিজিটাল ঋণ চালু
ফাইল ছবি

জরুরি অর্থের প্রয়োজনে তাৎক্ষণিকভাবে জামানতবিহীন ডিজিটাল ঋণ পাবেন গ্রাহকরা। যে কোনো সময় যে কোনো স্থান থেকে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমে গ্রাহকরা সঙ্গেই সঙ্গেই ব্যাংক থেকে ঋণ পেয়ে যাবেন। বেসরকারি খাতের সিটি ব্যাংক বিকাশের মাধ্যমে ঋণ দেবে।

দেশে প্রথমবারের মতো এমন ঋণ কার্যক্রম শুরু হলো। প্রাথমিকভাবে একটি পাইলট প্রকল্পের আওতায় একজন গ্রাহক সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত সিটি ব্যাংকের ঋণ পাবেন। নির্বাচিত সীমিতসংখ্যক বিকাশ অ্যাপ গ্রাহক এই ডিজিটাল ঋণ গ্রহণের সুযোগ পাবেন। আর্থিক অন্তর্ভুক্তির কার্যকর সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদনক্রমে, ব্যাংক ঋণকে প্রযুক্তির সহায়তায় আরো জনমুখী করতেই এই প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে ব্যাংক বিকাশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। প্রকল্পের সফল সমাপ্তি শেষে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদনক্রমে, ঋণ পাওয়ার উপযুক্ত বিকাশ গ্রাহকদের জন্য এই সেবা আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করবে সিটি ব্যাংক। ঋণ নেওয়ার পর তিন মাসে, সমপরিমাণ তিন কিস্তিতে নির্ধারিত তারিখে গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিশোধিত হয়ে যাবে।

প্রকল্পটির বিষয়ে সিটি ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিইও মাসরুর আরেফিন বলেন, আমাদের দেশে অনেকেরই, বিশেষত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের হঠাত্ই অর্থের প্রয়োজন হয়। সেটি কীভাবে আরো সহজে তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া যায় এবং তারা যেন স্বাচ্ছন্দ্যে সেই অর্থ ব্যবহার করতে পারেন, সেটি মাথায় রেখেই এই ডিজিটাল ঋণের যাত্রা। উদ্যোগটি সম্পর্কে বিকাশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদীর বলেন, জরুরি মুহূর্তে তাত্ক্ষণিক জামানতবিহীন এই ঋণ প্রান্তিক মানুষ, তরুণ সমাজ, প্রান্তিক ব্যবসায়ীদের জন্য আশীর্বাদ হবে বলেই আমাদের বিশ্বাস।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x