ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করলেন এনবিআর চেয়ারম্যান

‘ওয়ালটন স্বপ্ন দেখতে ও বাস্তবায়ন করতে জানে’

‘ওয়ালটন স্বপ্ন দেখতে ও বাস্তবায়ন করতে জানে’
ওয়ালটনের ভিআরএফ এসি তৈরি কার্যক্রমের উদ্বোধন করছেন এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।ছবি: ইত্তেফাক

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেছেন, ‘ওয়ালটন আমাদের গর্ব। তারা বিশ্ববাজারে শক্ত অবস্থান তৈরি করছে। ওয়ালটন শুধু ব্যবসা নয় বরং দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে। বাংলাদেশকে ব্র্যান্ডিং করছে। ওয়ালটন স্বপ্ন দেখতে জানে এবং সেই স্বপ্নের বাস্তবায়ন করতে জানে।’

বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স ও প্রযুক্তিপণ্য জায়ান্ট ওয়ালটনের কারখানা পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন এনবিআর চেয়ারম্যান এবং অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

শনিবার (৩ অক্টোবর) গাজীপুরের চন্দ্রায় কারখানা পরিদর্শন করেন তিনি। সে সময় এনবিআর চেয়ারম্যান ওয়ালটনের ‘সিক্সএনাইন’ মডেলের নতুন স্মার্ট রেফ্রিজারেটর উদ্বোধন করেন।

অত্যাধুনিক ফিচারসমৃদ্ধ আইওটি বেজসড ওই স্মার্ট রেফ্রিজারেটর মুঠোফোনে নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। উদ্বোধন করেন ভেরিয়াবেল রেফ্রিজারেন্ট ফ্লো (ভিআরএফ) এসি উৎপাদন কারখানা। এর মাধ্যমে বিশ্বের ৯ম ভিআরএফ প্রযুক্তির গবেষণা ও উৎপাদনকারী দেশের মর্যাদা পেলো বাংলাদেশ। একইসঙ্গে তিনি টেলিভিশনের নতুন ৬টি মডেল, টিভির ডিজিটাল অটো রেজিস্ট্রেশন সফটওয়্যার এবং ‘ট্যামারিন্ড ইএক্স প্রো’ নামের একটি নতুন মডেলের ল্যাপটপের উদ্বোধন করেন।

উল্লেখ্য, রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রযুক্তিগত উন্নয়ন ও অগ্রগতি, বিশ্বমানের উৎপাদন প্রক্রিয়া ও পণ্যের গুণগতমান সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করতে ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করেন এনবিআর চেয়ারম্যান।

এনবিআর চেয়ারম্যান আরও বলেন, ‘কম্প্রেসর একটি হাই-টেক প্রোডাক্ট। ওয়ালটন এখানে কম্প্রেসরের সব ধরনের কাঁচামাল ও খুচরা যন্ত্রাংশ তৈরি করছে। আজ তারা আনুষ্ঠানিকভাবে ভিআরএফ প্রযুক্তির এসি উৎপাদন শুরু করলো। এর মাধ্যমে শুধু আমদানি বিকল্প পণ্য উৎপাদনই নয় বরং রপ্তানির এক বিশাল ক্ষেত্র তৈরি হলো। তারা ভিআরএফ এসি দিয়ে বিশ্বের বড় বড় কোম্পানির সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। যা আমাদের জন্য গর্বের বিষয়। সরকারের পক্ষ থেকে ওয়ালটনকে প্রয়োজনীয় নীতি সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।’

আরও পড়ুন: শঙ্কামুক্ত আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ

শনিবার সকালে ওয়ালটন কারখানা কমপ্লেক্সে পৌঁছলে অতিথিদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। সেসময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এসএম নূরুল আলম রেজভী, ম্যানেজিং ডিরেক্টর এসএম আশরাফুল আলম এবং পরিচালক এসএম রেজাউল আলম।

কারখানা পরিদর্শনকালে অন্যদের মধ্যে ছিলেন-ওয়ালটনের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর নজরুল ইসলাম সরকার ও আলমগীর আলম সরকার, চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার আবুল বাশার হাওলাদার, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর শোয়েব হোসেন নোবেল, হুমায়ূন কবীর, উদয় হাকিম, তানভীর রহমান, ইউসুফ আলী, লিয়াকত আলী ও আমিন খান, ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ফিরোজ আলম ও জাহিদুল ইসলাম ও অভিনেতা আজিজুল হাকিম প্রমুখ।

এর আগে অতিথিরা ওয়ালটনের বিশাল কর্মযজ্ঞের ওপর নির্মিত ভিডিও ডকুমেন্টারি উপভোগ করেন। পরিদর্শন করেন ওয়ালটনের সুসজ্জিত প্রোডাক্ট ডিসপ্লে সেন্টার। পর্যায়ক্রমে তারা বিশ্বমানের রেফ্রিজারেটর উৎপাদন প্রক্রিয়া, মেটাল কাস্টিং, কম্প্রেসর, এয়ার কন্ডিশনার, টেলিভিশন, এলিভেটর, এসএমটি প্রোডাকশন, পিসিবি, কম্পিউটার এবং মোবাইল ফোন উৎপাদন সরেজমিনে পর্যবেক্ষণ করেন।

উল্লেখ্য, দেশের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি ওয়ালটনের তৈরি আন্তর্জাতিক মানের পণ্য রপ্তানি হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত