শেয়ারবাজারে লেনদেন বেড়েছে

শেয়ারবাজারে লেনদেন বেড়েছে
ছবি: সংগৃহীত।

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস গতকাল মঙ্গলবার সবকটি মূল্যসূচক বেড়েছে। সেই সঙ্গে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। গতকাল বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের দরপতন হলেও ঊর্ধ্বমুখী থেকে লেনদেন শেষ হয়েছে। আগের দিন সোমবার পতনের পর আবার ঘুরে দাঁড়াল শেয়ারবাজার।

মূল্যসূচক ও লেনদেন বাড়ানো দুই ক্ষেত্রেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে বিমা খাত। অন্য খাতের বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠান দরপতনের তালিকায় নাম লেখালেও সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্র ছিল বিমা খাতের কোম্পানিগুলোর। দাম বাড়ার ক্ষেত্রে বড় ধরনের দাপট দেখিয়েছে বিমা কোম্পানিগুলো। এতে দিনের লেনদেন শেষে তালিকাভুক্ত ৫০টি বিমা কোম্পানির মধ্যে ৪৩টিই দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে চারটির। এমনকি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে সর্বোচ্চ দাম বাড়া ১০টি প্রতিষ্ঠানের সাতটিই দখল করেছে বিমা কোম্পানি। দাম বাড়ার তালিকায় দাপট দেখানোর পাশাপাশি লেনদেনের শীর্ষ তালিকাতেও আধিপত্য দেখিয়েছে বিমা খাত। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে সর্বোচ্চ লেনদেনের তালিকায় থাকা ২০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১টিই দখল করেছে বিমা কোম্পানি।

গতকাল দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে ১৪১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। বিপরীতে দাম কমেছে ১৪৭টির এবং ৬৭টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। অবশ্য বিমার ওপর ভর করে দিনের লেনদেন শেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২৪ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৫৩৫ পয়েন্টে উঠে এসেছে। গতকাল প্রধান সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে অপর দুই সূচক। এর মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় সূচকটি ২ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ১১৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসইর শরিয়াহ্সূচক ১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৪৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

মূল্যসূচকের উত্থানের পাশাপাশি ডিএসইতে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৩৫৬ কোটি ১০ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ১ হাজার ১৫৯ কোটি ৮৩ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনেদেন বেড়েছে ১৯৬ কোটি ২৭ লাখ টাকা। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। কোম্পানিটির ১৫৮ কোটি ৭৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশের ৫২ কোটি ২৬ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ৪৯ কোটি ২৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স।

এছাড়া ডিএসইতে লেনদেনের দিক থেকে শীর্ষ ১০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে—বেক্সিমকো ফার্মা, এশিয়া প্যাসিফিক জেনারেল ইনসিওরেন্স, ন্যাশনাল ফিড, রবি, ম্যাকসন স্পিনিং, সিটি জেনারেল ইনসিওরেন্স এবং বাংলাদেশ ফাইন্যান্স।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ৩৭ পয়েন্ট। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৩৭ কোটি ১৭ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া ২৬১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১২টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১০৭টির এবং ৪২টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x