কৃষিতে ভর্তুকি ৯ হাজার ৫০০ কোটি টাকা

কৃষিতে ভর্তুকি ৯ হাজার ৫০০ কোটি টাকা
প্রতীকী ছবি

আসন্ন ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেটে কৃষিতে ভর্তুকি বাবদ ৯ হাজার ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ বরাদ্দের প্রস্তাব করেন।

অর্থমন্ত্রী বেশ কয়েকটি কৃষি উপকরণের ওপর মূল্য সংযোজন কর বা ভ্যাট অব্যাহতির প্রস্তাব করেছেন। এর ফলে কৃষি উপকরণ কেনার খরচ কমছে। উইডার (নিড়ানি), উইনোয়ার (ঝাড়াইকল) উত্পাদন ও ব্যবসায়ী পর্যায়ে ভ্যাট অব্যাহতির প্রস্তাব করা হয়েছে বাজেট প্রস্তাবনায়। প্রস্তাবে বলা হয়, কৃষি যান্ত্রিকীকরণে ৩ হাজার ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। কৃষকদের কৃষিযন্ত্রের ক্রয়মূল্যের ওপর ৫০ শতাংশ থেকে ৭০ শতাংশ পর্যন্ত সহায়তার মাধ্যমে হ্রাসকৃত মূল্যে কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হচ্ছে। এর আওতায় ২০১০ থেকে ২০২০ পর্যন্ত প্রায় ৬৯ হাজার ৮৬৮টি কম্বাইন্ড হারভেস্ট, রিপার, সিডার, পাওয়ার টিলারসহ কৃষি যন্ত্রপাতি সরবরাহ করা হয়েছে। তাছাড়া কৃষি যান্ত্রিকীকরণের সুবিধার্থে ৬১ জেলায় ৫০ একর করে হাইব্রিড বোরো ধানের প্রদর্শনী প্ল্যান্ট স্থাপন করা হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, শর্ত সাপেক্ষে ফল ও শাকসবজি প্রক্রিয়াজাতকরণ, দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত পণ্য উত্পাদন, সম্পূর্ণ দেশীয় কৃষি হতে শিশুখাদ্য উত্পাদনকারী শিল্প এবং কৃষি যন্ত্রপাতি উত্পাদনে নতুন বিনিয়োগে ১০ বছরের করমুক্তি সুবিধার প্রস্তাব করছি। অর্থমন্ত্রী তার বাজেট বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশ এখনো কৃষিপ্রধান দেশ। কৃষি আমাদের অগ্রাধিকার খাত। কৃষি খাতের প্রধান উপকরণগুলো বিশেষ করে সার, বীজ, কীটনাশক আমদানিতে শূন্য শুল্কহার অব্যাহত রাখা হবে। দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রধান প্রধান খাদ্যদ্রব্যের ওপর বিদ্যমান শূন্য শুল্কহার অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। দেশীয় চাষিদের স্বার্থ রক্ষায় গাজর ও মাশরুম আমদানিতে শুল্কহার বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x