ঢাকা সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬
৩৪ °সে

মৎস্য রপ্তানিতে অর্থ বছরে আয় ৪ হাজার ৩১০ কোটি টাকা

মৎস্য রপ্তানিতে অর্থ বছরে আয় ৪ হাজার ৩১০ কোটি টাকা
মৎস্য রপ্তানি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, জিডিপি

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় জানানো হয়েছে, মৎস্য ও মৎস্যজাত পণ্য রপ্তানির মাধ্যমে গত অর্থ বছরে ৪ হাজার ৩১০ কোটি টাকা আয় হয়েছে।

কমিটির সভাপতি ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভুর সভাপতিত্বে আজ বৃহস্পতিবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সভায় আরো জানানো হয় জিডিপিতে মৎস্য খাতের অবদান ৩ দশমিক ৫৭ ভাগ।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিভিন্ন অধিদপ্তর, গবেষণা প্রতিষ্ঠান, একাডেমি ও উন্নয়ন প্রকল্পের কার্যক্রম ও অগ্রগতি বিষয়ে সভায় বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।

সভায় জানানো হয়, জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার ২০১৮ সালের প্রতিবেদন অনুযায়ী অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয়ে মৎস্য আহরণে বাংলাদেশের অবস্থান বিশ্বে তৃতীয় এবং সাদু পানির মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশ ৫ম স্থান অর্জন করেছে।

গত অর্থবছরে মৎস্য উৎপাদন ছিল ৪২ লাখ ৭৭ হাজার মেট্টিক টন, যার মধ্যে ইলিশের উৎপাদন ছিল ৫ লাখ ১৭ হাজার মেট্টিক টন।

সভায় আরও জানানো হয় , ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে দুধ উৎপাদন ছিল ৯৪ লাখ ৬ হাজার মেট্টিক টন এবং ডিম উৎপাদন ছিল ১ হাজার ৫৫২ কোটি।

সভায় জানানো হয় মৎস্য গবেষণা ইন্সটিউট মাছের প্রজনন, জাত উন্নয়ন ও চাষাবাদ বিষয়ক এবং ব্যবস্থাপনা বিষয়ক এ পর্যন্ত ৬০টি প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছে।

কমিটি জেলেদের মধ্যে চাল বিতরণ কার্যক্রম সম্প্রসারণ করতে এবং জেলেরা কোনো মালিকের অধীনে কাজ করে কিনা তা যাচাই করতে সুপারিশ করে।

কমিটির সদস্য মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মো. আশরাফ আলী খান খসরু, মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম, মো. শহিদুল ইসলাম (বকুল) ছোট মনির, নাজমা আকতার, শামীমা আক্তার খানম এবং কানিজ ফাতেমা আহমেদ সভায় অংশগ্রহণ করেন।

আরও পড়ুন: ‘ভারতে আবার জঙ্গি হামলা হলে খবর আছে’, পাকিস্তানকে যুক্তরাষ্ট্র

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব, মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দপ্তরের প্রধানগণসহ মন্ত্রণালয় ও সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন। বাসস

ইত্তেফাক/কেকে

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ এপ্রিল, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন