ঢাকা বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬
৩০ °সে


রাজশাহীর বাজারে হঠাৎ বেড়েছে আমের দাম

রাজশাহীর বাজারে হঠাৎ বেড়েছে আমের দাম
আম বিক্রির অপেক্ষায় ব্যবসায়ীরা। ছবি: ইত্তেফাক

সরবরাহ কমে যাওয়ায় রাজশাহীর বাজারে হঠাৎ সবধরনের আমের দাম বেড়েছে। আম ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমের মৌসুম প্রায় শেষের দিকে। ইতোমধ্যে বাজার থেকে অপেক্ষাকৃত সুস্বাদু জাতের আম গোপালভোগ, লক্ষ্মণভোগ বিদায় নিয়েছে। হাতেগোনা কিছু বাগানে রয়েছে আরেক সুস্বাদু জাতের আম ক্ষীরশাপাত (হিমসাগর)।

বর্তমানে রাজশাহীর বিভিন্ন বাজারে প্রতি মণ ক্ষীরশাপাত আম গড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪ হাজার থেকে ৪ হাজার ২০০ টাকায়। অথচ গত সপ্তাহেই এই আম ৩ হাজার থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে। প্রতিদিনই বাড়ছে আমের দাম।

আম ব্যবসায়ীরা বলছেন, এ সপ্তাহেই (আরও ২-৩ দিন) রাজশাহীর বাজারে ক্ষীরশাপাত আম পাওয়া যেতে পারে। বর্তমানে ল্যাংড়া জাতের আম রাজত্ব করছে রাজশাহীর বাজারে। ইতোমধ্যে বাজারে এসেছে কড়া মিষ্টি জাতের আম আম্রপালি। তবে এই জাতের আমও ফুরোতে যাচ্ছে আগামী সপ্তাহেই। এরপরই বাজারে পাওয়া যাবে সুরমা ও মহারাজসহ বিভিন্ন নামের সুস্বাদু ফজলি ও তোতাপুরিসহ নতুন নানা জাতের আম। সর্বশেষ জুলাই মাসের শেষ দিকে বাজারে উঠবে আশ্বিনা জাতের আম।

আরো পড়ুন: চালের বস্তায় মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ না থাকার ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাইকোর্ট

রাজশাহী মহানগরীর শালবাগানের আম ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান বলেন, জুন মাস প্রায় শেষ। তারপরও আম পাওয়া যাচ্ছে। বিশেষ করে ল্যাংড়া আম পাওয়া যাচ্ছে। এর কারণ হচ্ছে রমজান মাসে জেলা প্রশাসনের নির্ধারিত সময়ে এবার ব্যবসায়ীরা আম ভাঙেননি। কারণ রমজান মাসে সাধারণত আমের বাজার মন্দা থাকে। এজন্য সবার টার্গেট ছিল ঈদের পরের বাজার ধরার।

রাজশাহীতে আমের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার পুঠিয়ার বানেশ্বরের আম ব্যবসায়ী অধ্যাপক আসাদুর রহমান বলেন, মৌসুম প্রায় শেষ দিকে। প্রথম দিকে রমজানের কারণে কেনাবেচা হয়েছে কম। কিন্তু ঈদের পর দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে পাইকারি ব্যবসায়ীরা ট্রাকে করে আম নিয়ে যাচ্ছেন রাজশাহী থেকে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর, রাজশাহীর উপপরিচালক মো. শামসুল হক বলেন, চলতি মৌসুমে রাজশাহীতে প্রায় ২ লাখ ১৮ হাজার মেট্রিক টন আমের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ফলন কমার কারণে শেষ পর্যন্ত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন নাও হতে পারে। তবে এতে সমস্যা হবে না। যে ফলন হবে তা দিয়ে রাজশাহীসহ সারা দেশের আমের চাহিদা পূরণ সম্ভব।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৪ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন