ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬
২৯ °সে


প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে চায়না হারবারের বক্তব্য

প্রকাশিত সংবাদ সম্পর্কে চায়না হারবারের বক্তব্য
ছবি : সংগৃহীত

সাম্প্রতিককালে বিভিন্ন জাতীয় এবং চট্টগ্রামের আঞ্চলিক সংবাদ মাধ্যমে ওয়াহিদ কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের একজন কর্মচারীর মৃতদেহ উদ্ধার সম্পর্কে প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলোর প্রতি আমাদের দৃষ্টি আকর্ষিত হয়েছে।

প্রতিবেদনগুলোতে মৃত ব্যক্তির নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠানের বক্তব্যের ওপর ভিত্তি করে অভিযুক্ত হিসেবে চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড (সিএইচইসি) এর নাম উল্লেখিত হয়েছে। এই জাতীয় মিথ্যা ও অসত্য বক্তব্যের ফলে জনমনে বিভ্রান্তি তৈরি হয়েছে এবং চায়না হারবারের সুনাম ব্যাপকভাবে ক্ষুণ্ন হয়েছে। এমতাবস্থায় নিম্নে আমাদের বক্তব্য পেশ করা হলো ঃ

সর্বপ্রথমে চায়না হারবারের ম্যানেজমেন্ট এবং কর্মকর্তা-কর্মচারী নান্নু মিয়ার দুঃখজনক মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছে এবং তার পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছে।

চায়না হারবার ম্যানেজমেন্ট দৃঢ়ভাবে জানাচ্ছে যে চায়না হারবার ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেডের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জড়িত করে ওয়াহিদ কনস্ট্রাকশন লিমিটেড কর্তৃক উত্থাপিত সকল অভিযোগ, যা বিভিন্ন প্রতিবেদনে স্থান পেয়েছে, সেগুলো সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং উদ্দেশ্য প্রনোদিত।

বর্তমানে বিষয়টি পুলিশের তদন্তাধিন রয়েছে এবং আমরা তদন্ত দলকে আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছি। আমাদের আশা এবং বিশ্বাস যে ঘটনার পিছনের সত্যতা অতি শীঘ্রই বের হয়ে আসবে।

বিশ্বের ৮০টির অধিক দেশে চায়না হারবারের কার্যক্রম বিস্তৃত এবং গত ২০ বছরের অধিক সময় ধরে প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশে বৈধভাবে এবং সুনামের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা বাংলাদেশের সকল আইন ও বিধি-বিধান যথাযথভাবে পালন করে আসছি। আমাদের কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী বাংলাদেশের কোন আইন বা বিধি-বিধান লঙ্ঘন করলে সে যথাযথ শাস্তি পেতে বাধ্য। আমরা অত্যন্ত গর্বিত যে আমাদের প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশের অসংখ্য উন্নয়ন প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত এবং ১,৮০০ এর অধিক বাংলাদেশী প্রকৌশলী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারী বিভিন্ন প্রকল্পে আমাদের লোকজনের সঙ্গে সমন্বিতভাবে এবং সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে কাজ করছেন।

সামাজিক দায়বদ্ধতা অংশ হিসেবে চায়না হারবার বাংলাদেশে সমাজকল্যাণ মূলক কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে। উদাহরণ স্বরূপ সিরাজগঞ্জে প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ক্রসবার বাঁধ এবং প্রায় সাড়ে ছয় কোটি টাকা ব্যয়ে মিরেসরাইয়ে ১৬ একর জমি পুনরুদ্ধারের কাজ। এসকল অর্থ চায়না হারবারের নিজস্ব তহবিল থেকে বহন করা হয়েছে। গত বছর মিরেসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের কাছে আমাদের “বাতাং হারি-৩০” ড্রেজারের শ্রমিকরা সফলভাবে বিপদগ্রস্ত কয়েকজন বাংলাদেশী মত্সজীবির প্রাণ রক্ষা করতে সমর্থ হয়েছে। এছাড়াও খুলনায় রূপসায় বিভিন্ন স্কুলে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই ও শিক্ষা সামগ্রী এবং নবাবগঞ্জের কৃষকদের মাঝে গরু বিতরণ করেছে।

প্রকাশিত সংবাদের কারণে জনমনে সৃষ্ট বিভ্রান্তি দূরিকরণ এবং আমাদের প্রতিষ্ঠানের ক্ষতিগ্রস্ত সুনাম যথাসম্ভব পুনরুদ্ধারের স্বার্থে আমাদের বক্তব্যটি যথাযথ গুরুত্বের সঙ্গে আপনার সনামধন্য সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ করার জন্য আন্তরিকভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।

বিজ্ঞপ্তি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৬ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন