ঢাকা বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬
৩০ °সে


শেয়ারবাজারে টানা পাঁচ কর্মদিবসে সূচকের পতন

শেয়ারবাজারে টানা পাঁচ কর্মদিবসে সূচকের পতন
ফাইল ছবি

শেয়ারবাজারে বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফেরাতে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন উদ্যোগ সত্ত্বেও কার্যকর সুফল মিলছে না বরং সাম্প্রতিক সময়ে সার্বিকভাবে দরপতন হচ্ছে। সর্বশেষ গত পাঁচ কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টানা দরপতন হয়েছে।

গত এক সপ্তাহ আগে ২৭ আগস্ট ডিএসইর সূচক ছিল ৫ হাজার ১৭৮ পয়েন্ট। আর গতকাল মঙ্গলবার লেনদেন শেষে সূচক দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৭ পয়েন্টে। অর্থাত্ আলোচ্য সময়ে সূচক কমেছে ১৭০ পয়েন্ট। সর্বশেষ গতকাল মঙ্গলবার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ২৬ পয়েন্টের বেশি।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, মূলত শেয়ারবাজারে বিনিয়োগকারীদের একটি বড়ো অংশেরই আস্থা ফেরেনি। তাদের শঙ্কা বাজারে এখনো কোনো না কোনোভাবে সিন্ডিকেট সক্রিয় রয়েছে। অপেক্ষাকৃত দুর্বল কোম্পানির শেয়ারের দর বাড়ছে। অন্যদিকে বাজারে স্থিতিশীলতাও দেখা যাচ্ছে না বরং ক্রমাগত বাজার মূলধন হারাচ্ছে। বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এ পরিস্থিতিতে অপেক্ষাকৃত ছোটো বিনিয়োগকারীদের একটি অংশ বাজার থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন। নতুন বিনিয়োগকারীরাও বাজারে আসার ক্ষেত্রে অনিশ্চয়তায় রয়েছেন।

এদিকে বিশ্ব অর্থনীতিও এক ধরনের টালমাটাল অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। চীন মার্কিন বাণিজ্যযুদ্ধের সঙ্গে সম্প্রতি যুক্ত হয়েছে যুক্তরাজ্যের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি। যুক্তরাজ্যের মুদ্রা পাউন্ডের দর গত তিন বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থায় নেমেছে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ডিএসই সূত্র জানিয়েছে, সূচক কমার পাশাপাশি গতকাল ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণও আগেরদিনের তুলনায় কমেছে। গতকাল এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ৩৯৪ কোটি ৮২ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবস সোমবার লেনদেন হয়েছিল ৪৪২ কোটি ৯০ লাখ টাকার। সে হিসাবে গতকাল লেনদেন কমেছে ৪৮ কোটি টাকা। লেনদেনে অংশ নেওয়া প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৯টির, কমেছে ১৬৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৬১টির দাম।

ডিএসইতে লেনদেনের ভিত্তিতে টাকায় প্রধান ১০টি কোম্পানি হলো—মুন্নু সিরামিকস, মুন্নু স্টাফলার, স্টাইল ক্রাফট, ইউনাইটেড পাওয়ার, গ্রামীনফোন লিমিটেড, লিগ্যাসি ফুটওয়ার, সিলকো ফার্মাসিউটিক্যালস, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস ও জেএমআই সিরিঞ্জ।

আরো পড়ুন : জানুয়ারিতে ফাইভ-জি নীতিমালা

দর বৃদ্ধির শীর্ষে প্রধান ১০টি কোম্পানি হলো—দেশ গার্মেন্টস, জেমিনী সী ফুড, স্টাইল ক্রাফট, এস এস স্টীল, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ, সোনালী আঁশ, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, লিগ্যাসি ফুটওয়ার, গ্ল্যাক্সো স্মিথ ক্লাইন বাংলাদেশ ও সিলকো ফার্মাসিউটিক্যালস।

অন্যদিকে দর কমার শীর্ষে প্রধান ১০টি কোম্পানি হলো—ইমাম বাটন, সি এন্ড এ টেক্সটাইল, সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ, দুলামিয়া কটন, ঢাকা ডায়িং, ইউনাইটেড এয়ার, তাল্লু স্পিনিং, এনএলআই ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ড, সুহূদ ইন্ডাস্ট্রিজ ও ইবিএল এনআরবি মিউচ্যুয়াল ফান্ড।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১১০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৩০২ পয়েন্টে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৯৯ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ২৩৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৬৯টির, কমেছে ১৫০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির।

ইত্তেফাক/ইউবি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন