গ্রামীণফোনের শেয়ারহোল্ডাররা হারিয়েছেন ১৫ হাজার কোটি টাকা

প্রকাশ : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

  ইত্তেফাক রিপোর্ট

ছবি: সংগৃহীত

শেয়ারবাজারে গ্রামীণফোনের শেয়ারদর ক্রমাগত কমছে। এই কোম্পানির শেয়ারহোল্ডাররা গত পাঁচ মাসে শেয়ারের দর হারিয়েছেন প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা।

কোম্পানিটির মোট শেয়ারের ৯০ শতাংশ রয়েছে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে। সেই হিসেবে দরপতনের কারণে কোম্পানিটির উদ্যোক্তা ও পরিচালকরা হারিয়েছেন সবচেয়ে বেশি।

গত পাঁচ মাস আগে গ্রামীণফোনের কাছে পাওনা টাকা দাবি করে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। এরপর থেকেই কোম্পানিটির শেয়ারের দর কমতির দিকে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) তথ্য অনুযায়ী, গত প্রায় পাঁচ মাসে শেয়ারের দর ১২২ টাকা কমে এখন ৩০০ টাকার নিচে নেমে এসেছে। গত ১ এপ্রিল কোম্পানির প্রতিটি শেয়ারের দর ছিল ৪১৭ টাকা। আর গতকাল বৃহস্পতিবার লেনদেন শেষে শেয়ারটির দর দাঁড়িয়েছে ২৯৫ টাকায়। বাজারে কোম্পানির শেয়ার সংখ্যা ১৩৫ কোটি।

জানা গেছে, উদ্যোক্তা পরিচালকদের বাইরে বাকি শেয়ারের মধ্যে ২ দশমিক ১৪ শতাংশ রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৩ দশমিক ৯২ শতাংশ এবং বিদেশিদের কাছে রয়েছে ৩ দশমিক ৯৪ শতাংশ শেয়ার।

বিটিআরসি গত ২ এপ্রিল গ্রামীণফোনের কাছে পাওনা সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকা পরিশোধের জন্য চিঠি দেয়। এর মধ্যে একটি বড়ো অংশ রয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর)। তবে এখন পর্যন্ত ঐ অর্থ পরিশোধ করেনি গ্রামীণফোন। এছাড়া রাজস্ব বিষয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগও রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে।

ইত্তেফাক/এমআর