বেরোবিতে ‘বি’ ইউনিটে প্রথম হওয়া সেই শিক্ষার্থীর ভর্তি স্থগিত

বেরোবিতে ‘বি’ ইউনিটে প্রথম হওয়া সেই শিক্ষার্থীর ভর্তি স্থগিত
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়। ফাইল ছবি

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০ সেশনের ভর্তি পরীক্ষায় দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ ওঠায় ‘বি’ ইউনিটে প্রথম স্থান অধিকারকারী মিশকাতুল জান্নাতের ভর্তি স্থগিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। শনিবার সন্ধ্যায় এক নির্বাহী আদেশে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আবু হেনা মুস্তাফা কামাল।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের প্রভাষক ইমরানা বারীর ছোটবোন সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটে রেকর্ড পরিমাণ নম্বর পেয়ে প্রথম স্থান অধিকার করলেও অন্য দুই ইউনিটে সর্বনিম্ব নম্বর পেয়ে ফেল করে। বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি কার্যক্রম বন্ধ রেখে বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবিতে লিখিত আবেদন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্ধ শতাধিক শিক্ষক। আবেদনের প্রেক্ষিতে সেদিনই তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এদিকে, ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি কার্যক্রম বন্ধের দাবিতে রবিবার কর্মসূচী ঘোষণা করেছে সম্মিলিত শিক্ষক সমাজ। বিশ্ববিদ্যলিয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি গাজী মাজহারুল আনোয়ার বলেন, ‘তদন্ত ছাড়া কেন ভর্তি স্থগিত করা হলো? যদি স্থগিত করতে হয় তাহলে গোটা পরীক্ষা কার্যক্রম স্থগিত করতে হবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আবু হেনা মুস্তাাফা কামাল জানান, ‘বিষয়টি খতিয়ে দেখতে ৩ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। উপাচার্য স্যারের নির্বাহী আদেশে তার ভর্তি স্থগিত করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন: খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ঢাকা কলেজ ছাত্রদলের মশাল মিছিল

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ দেশের বাইরে থাকায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

ইত্তেফাক/নূহু

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত