ঢাকা শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৭
২২ °সে

শিক্ষার্থীকে মেরে হাসপাতালে পাঠালেন ছাত্রলীগ নেতা

শিক্ষার্থীকে মেরে হাসপাতালে পাঠালেন ছাত্রলীগ নেতা
আহত ছাত্র মো. আনসার আলী। ছবি: ইত্তেফাক

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) এক শিক্ষার্থীকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। মেজাজ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে দুর্ঘটনাবশত ওই ঘটনা ঘটেছে বলে জানান অভিযুক্ত ফজলুল হক হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক মো শাহ আলম। আর মারধরের শিকার ছাত্রের নাম মো. আনসার আলী।

ভেটেরিনারি অনুষদের ৪র্থ বর্ষের ও ফজলুল হক হলের আবাসিক শিক্ষার্থী আনসার আলী তার লিখিত অভিযোগে জানান, রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জব্বার মোড়ে কামালের দোকানে চা পান করার সময় হলে ফজলুল হক হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক মো শাহ আলম উপস্থিত হন। তখন তাকে (শাহ আলম) বসতে বললে তিনি অপমান বোধ করেন এবং আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দেন। এরপর বাকৃবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক মো. মেহেদী হাসান বিপ্লব উপস্থিত হলে তার উস্কানিতে শাহ আলম দোকানের লাকড়ি এনে আমার উপর অতর্কিত হামলা চালান। এতে আমার ডান হাতের কাঁধের সংযোগস্থল আলাদা হয়ে যায় এবং মাথা ও কপালে প্রচণ্ড আঘাত পাই। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করেছি। আগামী ১৭ তারিখ আমার ফাইনাল পরীক্ষা রয়েছে। এমন অবস্থায় আমি পরীক্ষায়ও বসতে পারব কি না তা নিয়ে শঙ্কায় আছি।

অভিযুক্ত শাহ আলম বলেন, ‘আমার যে বিষয়ে রাগ হয় সে বিষয়টা নিয়ে অনেকদিন ধরে জ্বালাতন করছিল আমার জুনিয়র (আনসার)। আমার সঙ্গে এরকম করতে বারবার নিষেধ করলেও সে শোনেনি। পরে গতকাল আবার একই কাজ করলে আমি আমার মেজাজ নিয়ন্ত্রণ করতে পারিনি। এতে তার হাত ভেঙ্গে যাবে বুঝতে পারিনি। এটা অ্যাক্সিডেন্টালি হয়ে গেছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল হক বলেন, এসব বিষয়কে কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেওয়া হবে না। খুব তাড়াতাড়ি তদন্ত কমিটি গঠন করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৪ জানুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন