গোয়ালন্দে স্কুলছাত্র হত্যার বিচারের দাবিতে সহপাঠীদের মানববন্ধন

গোয়ালন্দে স্কুলছাত্র হত্যার বিচারের দাবিতে সহপাঠীদের মানববন্ধন
রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের ছাত্র মিরাজের হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার মানবন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে তার সহপাঠীরা। ছবি: ইত্তেফাক

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের ছাত্র মিরাজের হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার মানবন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে তার সহপাঠীরা। এর আগে নিখোঁজ হওয়ার পাঁচদিন পর দুর্গম পদ্মার চর থেকে মিরাজের গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মিরাজের বাবা সিরাজ খান অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে থানায় মামলা করেছে।

উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের উত্তর চর পাচুরিয়া গ্রামের দরিদ্র কৃষক সিরাজ খানের ছেলে ও দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র মিরাজ গত ২৭ আগস্ট নিখোঁজ হয়। এর ৫ দিন পর ২ সেপ্টেম্বর গোয়ালন্দ উপজেলায় দেবগ্রাম ইউনিয়নের পদ্মা নদীর তীরবর্তী দুর্গম চর কাওয়ালজানি এলাকা থেকে স্কুল ছাত্র মিরাজের গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

লাশ উদ্ধারের পর সেখানে মিরাজের মা হাসনা বেগমসহ পরিবারের সদস্যরা গেলেও তখন তারা লাশটি মিরাজের বলে সনাক্ত করতে পারেনি। কাঁদামাটির মধ্যে পুতে রাখা লাশটি এতোটাই বিকৃত ছিল যে সাধারণভাবে তা চেনার সুযোগ ছিল না।

মিরাজের বড় ভাই সেলিম খান জানান, লাশের চেহারা দেখে চেনার উপায় ছিল না। তারপরও মিরাজের কপালের উপর কাটা দাগ ও পরনের হাফপ্যান্ট দেখে আমরা নিশ্চিত হয়েছি লাশটি মিরাজের।

এদিকে স্কুলছাত্র মিরাজের হত্যাকারিদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলে সামনে বিশাল মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে তার সহপাঠীরা। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় শুরু হওয়া ঘন্টা ব্যাপী মানবনন্ধনে খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বক্তব্য রাখেন, দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মোহম্মদ শহিদুল ইসলাম, সহকারী প্রধান শিক্ষক মেহেদী আবু হাসান, শিক্ষক সুরাইয়া পারভীন, শামীম শেখ, দশম শ্রেণির ছাত্র কাউছার মাহমুদ, সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী কানিজ সুবর্ণা প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়াবীর জানান, পুলিশ মিরাজের নিখোঁজ হওয়া ও হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটনে অধিক গুরুত্ব দিয়ে তদন্তকাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ক্লুলেস হত্যাকান্ড হলেও আশাকরি দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।

ইত্তেফাক/এসি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত