গবেষণা চুরির অপরাধে ঢাবির ৩ শিক্ষকের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনাল গঠন

গবেষণা চুরির অপরাধে ঢাবির ৩ শিক্ষকের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনাল গঠন
ফাইল ছবি

গবেষণা চুরির অপরাধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সামিয়া রহমান ও অপরাধ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সৈয়দ মাহফুজুল হক মারজান এবং ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মুহাম্মাদ ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে দুটি ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়।

এছাড়া চলতি শিক্ষাবর্ষের উন্নয়ন ফি অর্ধেক করা ও ছুটি কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য ও অনুজীব বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. মিজানুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সামিয়া রহমান ও সৈয়দ মাহফুজুল হক মারজানের বিরুদ্ধে এর আগে ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়েছে কিন্তু ট্রাইব্যুনালে কে বা কারা বিচারক হিসেবে থাকবেন তা নির্ধারিত হয়নি। এবারের সিন্ডিকেটে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন অধ্যাপক মো. রহমত উল্যাহকে চেয়ারম্যান করে ও সিনেটের একজন প্রতিনিধি ও অভিযুক্তদের পক্ষ থেকে একজন প্রতিনিধি নিয়ে ট্রাইব্যুনাল গঠিত হবে। উপাচার্য দুজন সদস্য ঠিক করে সময় বেঁধে দিবেন। এটি সর্বোচ্চ আট সপ্তাহ পর্যন্ত হতে পারে।

আরো পড়ুন : জাতি বিনির্মাণে মানুষের মনন তৈরিতে গণমাধ্যম অনন্য

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে গঠিত ট্রাইব্যুনালে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনজীবী ও সিন্ডিকেট সদস্য এ এফ এম মেজবাহ উদ্দিনকে চেয়ারম্যান করা হয়। এ শিক্ষকের গবেষণায় সিংহ ভাগ চুরি করা হয় বলে প্রমাণিত হয়েছে।

সিন্ডিকেট সভা শেষে জনসংযোগ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের লেখাপড়ার ক্ষতি পুষিয়ে নিতে আসন্ন শীতকালীন ক্লাস ছুটি ১৭ দিনের পরিবর্তে ৭ দিন ও গ্রীষ্মকালীন ছুটি ৪০ দিনের পরিবর্তে ২০ দিন করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত