শেকৃবি অন ক্যাম্পাস হাল্ট প্রাইজের ফাইনাল রাউন্ড অনুষ্ঠিত 

শেকৃবি অন ক্যাম্পাস হাল্ট প্রাইজের ফাইনাল রাউন্ড অনুষ্ঠিত 
ফাইল ছবি

শিক্ষার্থীদের নোবেল খ্যাত হাল্ট প্রাইজের শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) হাল্ট প্রাইজ অর্গানাইজেশন অন-ক্যাম্পাস ক্যাম্পেইন প্রতিযোগিতার ফাইনাল রাউন্ড সম্পন্ন হয়েছে। ফাইনালে ৮টি টিমের মধ্য থেকে টিম আপলোডিয়ান চ্যাম্পিয়ন হয়ে পরবর্তী রেজিওনাল রাউন্ডের জন্য নির্বাচিত হয়েছে।

দ্বিতীয় বারের মতো এই প্রতিযোগিতা শেকৃবি ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এবারের প্রতিযোগিতার প্রতিপাদ্য ছিল ‘ফুড ফর গুড’। প্রতিযোগিতায় ৪১টি টিম রেজিস্ট্রেশন করে যার মধ্যে ৮টি টিম ফাইনাল রাউন্ডের জন্য নির্বাচিত হয়। ফাইনালে অংশগ্রহণ করে এওয়াক এগ্রোফিলিক ইমপ্যক্টরস, টিম আপলোডিয়ান, এগ্রি ওয়েভার, ম্যাজিক মিল, বুলস আই, টিম গ্যম্বিট স্ট্রাইকারস এবং ল্যাটিবি।

হাল্ট প্রাইজকে বলা হয় বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যবসায় উদ্যোগ প্রতিযোগিতা। যৌথভাবে যার আয়োজক জাতিসংঘ ও বিল ক্লিনটন ফাউন্ডেশন। প্রতি বছর সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের আহ্বানে বহু শিক্ষার্থী একটি নির্দিষ্ট সমস্যার সমাধান করতে ঝাঁপিয়ে পড়ে এই প্রতিযোগিতার সুবাদে। বিজয়ী দলকে দেওয়া হয় বাংলাদেশি মূল্যে সাড়ে ৮ কোটি টাকা বা ১ মিলিয়ন ইউএস ডলার।

এ বছর করোনা মহামারীর কারণে সব ধরনের প্রতিযোগিতা ডিজিটাল প্লাটফর্মের মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়। সেই অনুযায়ী ফাইনাল রাউন্ডের সকল কার্যক্রম অনলাইন প্লাটফর্মে সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে ফাইনাল রাউন্ড এর কার্যক্রম শুরু হয়।

ফাইনালে প্রধান অতিথি হিসেবে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শহিদুর রশিদ ভূঁইয়া এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে অধ্যাপক ড. নজরুল ইসলাম এবং গেস্ট অফ অনার হিসেবে ফার্মিং ফিউচার বাংলাদেশের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার মো. আরিফ হোসাইন উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন : কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

বিচারক হিসেবে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদের এগ্রি এক্সটেনশন বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহবুবুল আলম, বহুব্রীহি প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ও সহপ্রতিষ্ঠাতা গালিব হাসান খান, বাংলাদেশ ওয়াধনি ফাউন্ডেশনের প্রোগ্রাম ম্যানেজার এস্তানুল কবির এবং শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের এগ্রিবিজনেস ম্যানেজমেন্ট অনুষদের এগ্রবিজনেস এন্ড মার্কেটিং বিভাগের প্রভাষক সাইফুল ইসলাম শাওন উপস্থিত ছিলেন।

ফাইনালে ৮টি টিমের বিজনেস আইডিয়া প্রেজেন্টেশন দেওয়ার পর বিচারকদের রায়ে টিম আপলোডিয়ান কে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়। ১ম রানার আপ হিসেবে টিম বুলস আই এবং ২য় রানারআপ হিসেবে টিম এওয়াক এগ্রোফিলিক ইমপ্যক্টরস হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। শেকৃবি অন ক্যাম্পাস প্রোগ্রাম সফল করার জন্য প্রিন্ট মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিলেন ‘দৈনিক ইত্তেফাক’।

ইত্তেফাক/ইউবি

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত