বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ
হলে অবস্থান করছে শিক্ষার্থীরা। ছবি: ইত্তেফাক

সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হলে উঠাকে কেন্দ্র করে চলমান অস্থিরতার মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। আগামী ২৪ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ক্লাস শুরু হবে আর আবাসিক হল খুলবে ১৭ মে। এই সিদ্ধান্তের পর যারা এখনও হলে অবস্থান করছেন তাদেরকে দ্রুতই হল ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

আজ সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সোয়া ২টায় অনলাইনে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা জানান। তিনি বলেন, ‌‘দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান ২৪ মে থেকে শুরু হবে এবং আবাসিক হল খুলবে ১৭ মে। এর আগে সব ধরনের পাঠদান ও পরীক্ষা বন্ধ থাকবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীদের টিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

এদিকে আজও বন্ধ থাকা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) আবাসিক হলের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরা। দুপুর একটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন ছাত্রীরা।

এর আগে, বেলা সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের গুরুতর সড়ক ও মেয়েদের হলগুলো প্রদক্ষিণ করে বঙ্গমাতা হলের সামনে এসে শেষ হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সামিয়া হাসান নামে এক ছাত্রী ইত্তেফাককে বলেন, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে প্রায় ৩৫ জন ছাত্রী অবস্থান নিয়েছেন। এরপর আমরা মিছিল নিয়ে ফজিলাতুন্নেছা হলে গিয়ে তালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করবো। আপাতত এ দুটি হলেই অবস্থান নেবো। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যেহেতু আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যর্থ সেকারণে আমরা আর হল ছেড়ে যাবো না।

সর্বশেষ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোর ফটকের তালা ভেঙে প্রবেশ করেন। এরপর ঢাবি, রাবিসহ আরও কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন ছড়িয়ে পড়েছে।

গত বছরের ১৭ মার্চ করোনার প্রাদুর্ভাব রুখতে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। কয়েক ধাপে বাড়ানোর পর ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করা হয়।

করোনার প্রাদুর্ভাব কমে আসায় চলতি বছরের শুরু থেকেই বিভিন্ন মহল থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দেওয়ার দাবি আসতে থাকে। এ নিয়ে আন্দোলনে নামে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

ইত্তেফাক/এসআই

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x