অটোতে বসা নিয়ে শাবি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ২০:৪৫ | অনলাইন সংস্করণ

  শাবি সংবাদদাতা

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

অটোতে বসা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ। মঙ্গলবার দুপুরে ক্যাম্পাসে অটোতে বসাকে কেন্দ্র করে সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মৃন্ময় দাশ ঝুটনের অনুসারীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

প্রত্যক্ষসূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে ঝুটনের অনুসারী আতিক, রনি, রবিন শাহপরান হল থেকে ক্যাম্পসে আসার জন্য অটোতে উঠে। এ সময় ইমরান খানের অনুসারী লিখন এ অটোতে উঠতে গেলে আতিক, রবিন আটোতে আর জায়গা নাই বললে লিখন রবিনের জামার কলার ধরে। এক পর্যায়ে দুই পক্ষই উত্তেজিত হয়ে যায়। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ায় দুই গ্রুপ মিমাংসার জন্য বসলেও সেখানে ঝুটনের অনুসারীদের ইমরান খানের অনুসারীরা মারধর করায় আলোচনা ভেস্তে যায়। পরে ইমরান খানের অনুসারীরা দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে শাহপরান হলের সামনে মহড়া দিতে থাকলে ঝুটনের অনুসারীরা তাদেরকে ধাওয়া করে। ধাওয়া খেয়ে তারা শাহপরান হলের ১২৫ নম্বর রুমে অবস্থান নিলে ঝুটন গ্রুপ তাদেরকে রুমের বাইরের থেকে তালা মেরে দেয়। এ সময় তারা রুমের তালা খুলতে বললেও ঝুটনের অনুসারীরা রুমের তালা না খোলায় তারা রুমের জানালা ভেঙ্গে বাইরে বের হওয়ার চেষ্ঠা করে। পরে ইমরান খান ও মৃন্ময় দাশ ঝুটনের মধ্য আলোচনার মাধ্যমে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

আরও পড়ুন:  আগামী ১৯ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে এইচআর কনফারেন্স

এ বিষয়ে মৃন্ময় দাশ ঝুটন বলেন, 'আমরা এ বিষয় নিয়ে আলোচনায় বসছি। বিষয়টি নিয়ে সমাধানের চেষ্টা চলছে'। অপরদিকে ইমরান খান বলেন, 'এ ঘটনায় যারা জড়িত সঠিক তদন্তের মাধ্যমে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে প্রশাসন বলা হয়েছে। তাছাড়া ছাত্রলীগের পক্ষ থেকেও তদন্তের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে'। 

শাবি প্রক্টর জহির উদ্দিন আহমেদ বলেন, 'বিষয়টা নিয়ে আমরা দুই গ্রুপের সঙ্গে বসেছি। যদি বিষয়টা ম্যানেজবল হয় তাহলে ম্যানেজ করার চেষ্টা করব। আর তা নাহলে তদন্তের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন পরবর্তী পদক্ষেপ নিবে'।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি