পৌরসভা নির্বাচন: শৃঙ্খলা রক্ষায় মাঠে সক্রিয় প্রশাসন

পৌরসভা নির্বাচন: শৃঙ্খলা রক্ষায় মাঠে সক্রিয় প্রশাসন
গুরুদাসপুরে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় মাঠে সক্রিয় পুলিশ। ছবি : ইত্তেফাক

নির্বাচনী প্রচারণার মাঠে সক্রিয় রয়েছেন মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। ভাঙচুর, পোস্টার ছেড়া, পোস্টারের উপর লাগানোসহ বিভিন্নভাবে নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করছেন প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা। এসব কর্মকাণ্ড থামাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় মাঠে সক্রিয় রয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও গুরুদাসপুর থানা পুলিশ।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ইউএনও মো. তমাল হোসেন বলেন, নির্বাচন ঘিরে রাজনৈতিক দলগুলো যাতে দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টি করতে না পারে সে জন্য, দিন-রাত সমান তালে তারা মাঠে কাজ করছেন। এছাড়া প্রার্থীদের নির্বাচনী কার্যালয় রাত ৮টার মধ্যে বন্ধে করতেও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রার্থীদের সংঘর্ষ এড়াতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও পুলিশ সার্বক্ষণিক নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গুরুদাসপুর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়াই করছেন গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহনেওয়াজ আলী। পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম বিপ্লব (নারিকেল গাছ) আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে মাঠে রয়েছেন। এছাড়া ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে এড. আজমুল হক বুলবুলের সঙ্গে উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন (মোবাইল ফোন) লড়াই করছেন। এছাড়া সতন্ত্র হিসাবে ডা. মোহাম্মদ আলী (পানির জগ), আব্দুস সালাম রনি (ক্যারাম বোর্ড) নির্বাচনী মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, আওয়ামী লীগের মধ্যে বিভক্তি চলছে। নৌকার প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর মধ্যে রেষারেষি চলছে। যেকোনো সময় এই কলহ সংঘর্ষে রুপ নিতে পারে। এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের দলমনোনীত প্রার্থী শাহনেওয়াজ আলীর কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে শুক্রবার রাতে বিদ্রোহী প্রাথী আরিফুল ইসলাম বিপ্লবের সমর্থকদের বাকবিতণ্ডা হয়। এই বাকবিতণ্ডা উপজেলা প্রশাসন সংঘর্ষে রুপ নিতে দেয়নি। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে বিদ্রোহী প্রার্থীর পোস্টার ছিরে ফেলে দুর্বৃত্তরা। এনিয়ে দুই প্রার্থীর মধ্যে আত্ম কোন্দল চলছে।

ওসি আব্দুর রাজ্জাক জানান, নির্বাচন কেন্দ্র করে কোনো প্রার্থীর সমর্থকরা যাতে সংঘর্ষে জড়িয়ে না পড়ে, সে জন্য তারা নির্বাচনী রিটার্নিং কর্মকর্তা ইউএনও’র নির্দেশনায় ২৪ ঘণ্টা সক্রিয়ভাবে মাঠে রয়েছেন। এছাড়া পৌর এলাকায় যত্রতত্র মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা বন্ধ করতে মোটরসাইকেল জব্দ করছে পুলিশ।

ইত্তেফাক/কেকে

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x