নাদিয়ার ‘প্রতিবেশীকে ভালোবাসো’

নাদিয়ার ‘প্রতিবেশীকে ভালোবাসো’
নাদিয়া ইসলাম

দীপ্ত আজ সন্ধ্যা ৭াটয় প্রচারিত হবে ঈদুল আজহার বিশেষ ধারাবাহিক নাটক ‘প্রতিবেশীকে ভালোবাসো’। বৃন্দাবন দাশের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন শামীম জামান। এতে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, আ খ ম হাসান, শামীম জামান, শাহনাজ খুশি, নাদিয়া ইসলাম ও অন্যান্য।

নাটকটির গল্পে দেখা যাবে, পাশাপাশি দুই বাড়ি, দুই পরিবার। একটি খন্দকার, অন্যটি খান পরিবার। দীর্ঘদিন পাশাপাশি বসবাস করা পরিবার দুটির মধ্যে চিরকালই এক ধরনের মনস্তাত্ত্বিক দ্বন্দ্ব রয়েছে। খান পরিবারে বর্তমান প্রজন্মে দুই ভাই, এক বোন। দুই ভাইয়ের বজলু ও ফজলু একজনও তেমন কোনো কাজ করে না। বজলু স্বঘোষিত কবি ও সমাজ সেবক। ফজলুর জীবনের লক্ষ্য এখনো ঠিক হয়নি। তাদের ঘরজামাই দুলাভাই সংগীতপ্রেমিক।

প্রতিবেশী খন্দকার বাড়ির সুন্দরী মেয়ে বিউটির কারণে বজলুর সমাজসেবামূলক কাজ অনেক বেড়ে গেছে। পৌরনীতির বাক্য সে এখন প্রায়ই প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে ব্যবহার করে—প্রতিবেশীকে ভালোবাসো। বজলুর দুলাভাই বিউটিকে বেশ ছোটবেলা থেকে গানের তালিম দেয়। দুলাভাইয়ের মাধ্যমে দুই ভাই বিউটিকে প্রেমপত্র দিতে চেয়ে ব্যর্থ হয়। প্রতিবেশীদের এমন নানা ধরনের ঘটনার মধ্যে খন্দকার বাড়িতে একদিন শহর থেকে এক সুন্দরী বেড়াতে আসে।

সঙ্গত কারণে এলাকার ছেলেদের আর্কষণ বেড়ে যায় খন্দকার বাড়ির ওপর। তরুণীর মন ও দৃষ্টি আর্কষণ প্রতিযোগিতায় সামনের কাতারে চলে আসে বজলু আর ফজলু। দৃষ্টি এড়ায় না বিউটির। একদিন বজলুকে ডেকে নিয়ে বলে—তুমি নীতিভ্রষ্ট হয়ে যেও না, প্রতিবেশীকে ভালোবাসো।

ইত্তেফাক/বিএএফ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত