আবারও কাজে ফেরা, তবে...

আবারও কাজে ফেরা, তবে...
সারিকা সাবাহ। ছবি: সংগৃহীত

সারিকা সাবাহ। এসময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। মোস্তফা কামাল রাজের ফ্যামিলি ক্রাইসিস থেকেই তার জনপ্রিয়তার পারদ উর্ধ্বমুখী হয়। তবে এর পাশাপাশি নিজের পড়াশোনা ও টিভিসির কাজ করছেন। করোনার এই সংকটে সবাই যেমন স্থবির ছিলেন গোটা কয়েকমাস। সারিকাও তার ব্যতিক্রম নন। তবে আবারও যখন শুরু হলো নিউ নরমাল লাইফ। সেখানে নতুন ভাবে আবারও শুরু হলো ফ্যামিলি ক্রাইসিস। এরই ভেতরে জনপ্রিয় এই ধারাবাহিকটির টানা কয়েকপর্বের শুটিং শেষ হয়েছে। সারিকা সাবাহ’র কথায়, ‘সত্যি বলতে কী, দীর্ঘবিরতির পর আবারও যখন কাজ শুরু করলাম, তখন খানিকটা অপ্রস্তুতই মনে হচ্ছিল নিজেকে! তবে ফ্যামিলি ক্রাইসিস-এর পুরোটিমকে একসাথে পেয়ে সত্যিই সবার মনে আমাদের কী যে আনন্দ বলে বোঝানো যাবেনা।’

অভিনেত্রী হিসেবে নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে সচেতন সারিকা, তবে অস্থির নন একেবারেই। সারিকার মতে, ‘আমাকে ঐটা পেতেই হবে বা অমুক কাজ না করলে আমি মারা যাবো, এরকম অস্থিরতা আমার ভেতরে কখনওই ছিল না। এখনও নেই। তাই নিজের ভালোলাগা থেকেই বেছে বেছেই সবসময় কাজ করি।’

বর্তমানে একটি ওয়েব সিরিজ ও চারটি একক নাটকের কাজ শেষ করলেন সারিকা। এছাড়া একটি মোবাইল কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে নিযুক্ত দীর্ঘদিন ধরে। তার নতুন একটি প্রচারনায়ও অংশ নেবেন। সাম্প্রতিক এই বৈশ্বিক সংকট নিয়ে সারিকা সাবাহ বলেন, ‘আমাদের ভেতরে নতুন এক বোধের জাগরণ তৈরি করেছে এই করোনাকাল। কারণ আমি আমরা যতই বলি না কেন, আর আমরা কখনওই আগের জীবনে ফিরতে পারবো না। সেটা ফেরা সম্ভবও নয়। তাই আমি মনে করি গোটা শোবিজ ইন্ডাষ্ট্রিই নতুনভাবে রিস্টার্ট হচ্ছে। আমরা সবাই তার অংশ বিশেষ।’

সাম্প্রতিক সময়ে মডেল লরেনের আত্মহত্যার খবর প্রসঙ্গে সারিকা সাবাহ বলেন, ‘এসব খবর সত্যিই বিষন্ন করে দেয়। আমার মনে হয় মানসিক স্বাস্থের দিকে সকলেরই খুব নজর দেয়া প্রয়োজন। একজন সহকর্মী হিসেবে খুবই মর্মাহত হয়েছি খবরটি শুনে।’

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত