হাতজোড় করে বিচার চাইলেন কঙ্গনা

হাতজোড় করে বিচার চাইলেন কঙ্গনা
কঙ্গনা রানাউত। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

দেশের মঙ্গলের জন্য কথা বলায় মানসিক ও শারীরিকভাবে কেন অত্যাচার করা হচ্ছে। গোটা ভারতের কাছে এই প্রশ্নের উত্তর জানতে চাইলেন কঙ্গনা রানাউত। পাশাপাশি হাতজোড় করে নিজের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানালেন তিনি। শুক্রবার সকালে দেড় মিনিটের ভিডিও পোস্ট করে দেশবাসীর কাছে বিচার চাইলেন বলিউডের এই অভিনেত্রী।

ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘যেদিন থেকে আমি দেশের মঙ্গলের জন্য কথা বলেছি, আর যেভাবে আমার উপর অত্যাচার হচ্ছে, আমার শোষণ হচ্ছে তা গোটা দেশ দেখছে। বেআইনিভাবে আমার ঘর ভাঙা হয়েছে। কৃষকদের পক্ষে কথা বলার জন্য রোজ আমার বিরুদ্ধে কতই না মামলা হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনার সময় আমার বোন রঙ্গোলি ডাক্তারদের পক্ষে কথা বললে তার বিরুদ্ধেও মামলা হয়। সেই মামলায় আবার আমার নামও যোগ করা হয়। সেই সময় আমি টুইটারে ছিলাম না। আমাকে এটাও বলা হচ্ছে, আমি যেন নিজের উপরে হওয়া অত্যাচারের কথা কাউকে না বলি। আমি সুপ্রিম কোর্টের কাছে জানতে চাই, এটা কি মধ্যযুগীয় বর্বরতার সময় যেখানে মহিলাদের জীবন্ত পুড়িয়ে ফেলা হত? এই অত্যাচার গোটা বিশ্বের সামনে হচ্ছে। যারা মজা দেখছেন তাদের বলতে চাই, হাজার বছরের দাসত্বে যেভাবে রক্ত ঝরেছে, আবার তাই হবে যদি রাষ্ট্রবাদী কণ্ঠকে চুপ করিয়ে দেওয়া হয়। জয় হিন্দ!’

এর আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় উসকানিমূলক বার্তা ছড়ানোর অভিযোগে কঙ্গনা রানাউত এবং তার বোন রঙ্গোলি চান্দেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছিল বান্দ্রা মেট্রোপলিটন কোর্ট। তাতে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগও করা হয়েছিল। পরে মুম্বাই হাই কোর্ট তা খারিজ করে কঙ্গনা ও রঙ্গোলিকে বান্দ্রা থানায় হাজিরা দিতে বলে।

ইত্তেফাক/বিএএফ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x