‘কাজ ভালো হলে দর্শকরা গ্রহণ করেন’

‘কাজ ভালো হলে দর্শকরা গ্রহণ করেন’
ভাবনা। ছবি: সংগৃহীত

‘মানুষ পছন্দ করছে, তাদের চাহিদায় কাজ হচ্ছে, এটা আমি বিশ্বাস করি না। কারণ তারা তো এসে বলে না যে, আমি এই গল্প বা চরিত্র দেখতে চাই। কোনো নির্মাতা বা অভিনেতাও দর্শকদের জিজ্ঞেস করে নাটক বানান না। আমরা যে গল্প তাদের দেখাই তারা সেটাই দেখেন। দেখানোর দায়িত্বটা আসলে আমাদের। একজন অভিনেত্রী হিসেবে আমার কাজই ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করা। আর কাজ ভালো হলে দর্শকরা সেটা গ্রহণ করেন।’—দর্শক চাহিদা বা দর্শক রুচির পরিবর্তন নিয়ে কথাগুলো বলেন অভিনেত্রী ভাবনা। এখন কাজের পরিধি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মানহীন কাজের পাল্লাও ভারি হচ্ছে। রীতিমতো সেগুলো ভাইরালও হচ্ছে। এ নিয়ে অনেকেই দর্শক চাহিদার কথা সামনে আনেন।

এ নিয়ে ভাবনা আরো বলেন, ‘দর্শক চাহিদা বা রুচির বিষয়টি আসলে মুখরোচক গল্প ছাড়া কিছু কিছু না। এটা এক ধরনের গা বাঁচানো কথা। আমরা যা দেখাতে চাই সেটাই আসলে দর্শকরা দেখেন। শুধু শুধু দর্শকদের দোষ দিয়ে লাভ নেই।’ এদিকে ভাবনা বরাবরই বেছে বেছে মানসম্মত কাজ করে থাকেন। সেই ধারাবাহিকতায় বর্তমানে দুটি নাটকে কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি।

নিজের ব্যস্ততা নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি তো খুব বেশি কাজ কখনোই করি না। আমি মানসম্মত কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকার চেষ্টা করি। বর্তমানে অনিমেষ আইচের এখানে কেউ থাকে না এবং মোস্তফা কামাল রাজের হিট নাটকে অভিনয় করছি। আগামী মাসে এখানে কেউ থাকে না নাটকটির পরবর্তী পর্বগুলোর শুটিংয়ে অংশ নেব। এছাড়া পড়াশোনা নিয়েও ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, ‘এখানে কেউ থাকে না’ নাটকটি অতিলৌকিক একটি গল্পে নির্মিত হচ্ছে। যে ধরনের গল্পে খুব কম নাটকই ইন্ডাস্ট্রিতে দেখা যায়। এছাড়া নাটকটিতে ভাবনাকে মাঝে মাঝে ছবি আঁকতে দেখা যায়। যা তার বাস্তব জীবনের সঙ্গে অনেকটাই মিলে যায়।

তাকে ঘিরে এমন গল্প নির্মাণ কী জানতে চাইলে ভাবনা বলেন, ‘আমি মাঝে মাঝে ছবি আঁকি, বই লিখি। তাই বলে তো আমি চিত্রশিল্পী বা লেখক নই। আমি অভিনেত্রী। নির্মাতা আমাকে যে চরিত্রের জন্য উপযুক্ত মনে করেন আমি সেটাকে বাস্তব রূপ দেওয়ার চেষ্টা করি। নাটকটিতেও আমি যে চিত্রশিল্পী তা নয়, মাঝে মাঝে স্কেচ তৈরি করি। তবে হ্যাঁ, লেখক হয়তো কিছু মিল খুঁজে পেলেও পেতে পারেন।’

ইত্তেফাক/বিএএফ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x