ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২১ °সে


‘শুধু ইউটিউব থেকে মিউজিক ভিডিওর খরচ ওঠানো সম্ভব হচ্ছে না’

‘শুধু ইউটিউব থেকে মিউজিক ভিডিওর খরচ ওঠানো সম্ভব হচ্ছে না’
সঙ্গীতশিল্পী ধ্রুব গুহ। ছবি: সংগৃহীত

সঙ্গীতশিল্পী ধ্রুব গুহ। নিজের গানের পাশাপাশি গানের ইউটিউব প্লাটফর্ম ‘ধ্রুব মিউজিক স্টেশন’ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন নিয়মিত। নিজের বর্তমান গান নিয়ে ব্যস্ততা ও মিউজিক ভিডিওর বর্তমান অবস্থার পাশাপামি মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা বললেন বিনোদন প্রতিদিনের সঙ্গে। সাক্ষাত্কার নিয়েছেন মোস্তাফিজ মিঠু

অনেকদিন আপনার নতুন কোনো গান প্রকাশ পাচ্ছে না। কোনো ধরনের বিরতিতে আছেন কিনা? আমিতো আসলে সবসময় এমন সময় নিয়ে গান করি। ঠিক বিরতি নয়। কাজ তো চলছে। কয়েকটি গান তৈরি হয়ে আছে। তবে এখনি প্রকাশ করছি না। দুই এক মাস পর হয়তো গানগুলো প্রকাশ করবো।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশন নিয়ে ব্যস্ততা কেমন চলছে?

নিয়মিত ব্যস্ততাই চলছে। তবে আমরা মিউজিক ভিডিওর বিষয়ে একটু ভিন্ন পরিকল্পনা করছি। মডেল নিয়ে মিউজিক ভিডিওর চেয়ে যেই শিল্পীর গান তাদের নিয়েই মিউজিক ভিডিও নির্মাণের পরিকল্পনা চলছে।

হঠাত্ এই ধরনের পরিকল্পনার কারণ কী?

আসলে আমাদের মিউজিক ভিডিওগুলো মূলত ইউটিউব নির্ভর। সেখান থেকেই আমাদের খরচ উঠাতে হয়। শুধু ইউটিউব থেকে মিউজিক ভিডিওর খরচ উঠানো সম্ভব হচ্ছে না। কিন্তু গান প্রকাশ তো বন্ধ রাখা যায় না। আর এখন যেহেতু শুধুমাত্র অডিওর বাজার নেই, তাই একটা মিউজিক ভিডিও দরকার। তাই এখন সবকিছু ব্যালেন্স করতে হলে এই ধরনের পরিকল্পনার দিকে যেতে হচ্ছে।

তাহলে যারা বড় বাজেটের মিউজিক ভিডিও করছেন সেগুলোর খরচ কীভাবে উঠছে?

এটি এখন মোটামুটি সবাই বন্ধ করছেন। কারণ আমাদের এখানে ইউটিউব ছাড়া কোনো প্লাটফর্ম নেই যেখান থেকে মিউজিক ভিডিওর খরচ উঠানো যায়।

এর সমাধান কী মনে করেন?

বিকল্প প্লাটফর্ম লাগবে আমাদের। এখন অনেক স্ট্রিমিং অ্যাপ রয়েছে সেখানে মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করা যায়। তবে এটি আমার একার পক্ষে সম্ভব না। তবে আমরা সংশ্লিষ্ট সবাই মিলে এই ধরনের প্লাটফর্ম তৈরি করতে পারি।

একটি টেলিকম প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তাদের স্ট্রিমিং অ্যাপে হিন্দি গান প্রকাশ করছে। এই বিষয়টি নিয়ে জানতে চাই—

এই ঘটনায় ‘এমআইবি’র পক্ষ থেকে একটি উকিল নোটিশ পাঠানো হয়। সেখান থেকেই এর সমাধান করা হবে। আমাদের কাছে আমাদের শিল্পের প্রাধান্য সবার আগে। সেখানে আইন অমান্য করে হিন্দি গান এদেশে ব্যবসা করাটা কোনোভাবেই উচিত নয়। আমাদের স্বার্থটা আমাদেরই দেখতে হবে। অন্যদেশের গান শোনার সুযোগ তো রয়েছে। সেখান থেকে যারা চায় শুনতে পারেন।

ইত্তেফাক/বিএএ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ নভেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন