ফাল্গুনের খেয়ালি প্রকৃতি এই গরম এই শীত

ফাল্গুনের খেয়ালি প্রকৃতি এই গরম এই শীত
ছবি: সামসুল হায়দার বাদশা।

খেয়ালি প্রকৃতি অধিকার করে নিয়েছে আবহমান বাংলাকে। এখন যেন আর পঞ্জিকার অনুশাসন মানছে না ঋতুচক্র। অস্বাভাবিক আচরণ করছে আবহাওয়া। ফাল্গুনের এক সপ্তাহ পেরোলেও তার পরিপূর্ণ স্পর্শ নেই প্রকৃতিতে। ফাল্গুনের শুরুতে তাপমাত্রা ঊর্ধ্বমুখী হয়ে এখন আবারও নামছে। কুয়াশা ঢেকে রাখছে বসন্তের আকাশ। শনিবার পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

সেখানে সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস আবার দুপুরে সর্বোচ্চ ৩০ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, কয়েক দিন ধরে দেশের তাপমাত্রা বাড়লেও এখন তাপমাত্রা সামান্য কমছে। ফাল্গুন আকাশটা ধূসর মেঘে ঢেকে থাকার দিন নয়। এখন বসন্ত। ফাগুনের গান শেষে চৈতি রাগে ঝাঁজালো ঘ্রাণ নেওয়ার সময়।

সকালের আকাশে থাকবে চনমনে রোদ, যে রোদে থাকবে তারুণ্যের তাজা সৌরভ। কানে কানে শোনাবে নবজীবনের কাব্য। অথচ এসব নেই। ফাল্গুন এলে শীত পালাতে শুরু করে। লেপ-কাঁথা আবার গিয়ে বাক্স-পেটরায় সেঁধোয়। কিন্তু এ মৌসুমে এখনো অনেক বাড়িতেই গরমের পোশাক আলমারি বা ওয়ার্ডরোবের নিভৃত কোটরে থিতু হতে পারেনি। এই শীত এই গরম এক অচেনা ফাল্গুনকে ডেকে এনেছে।

আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান বলেন, আগামী দুই দিনে রাতের তাপমাত্রা একটু কম থাকবে। কয়েক দিন ধরেই মেঘ আসছে, আবার যাচ্ছে। ঋতু পরিবর্তন হচ্ছে। শীত থেকে গরমের দিকে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে আমরা গরমে গেছি। এখন আবার শীতের প্রভাব। গত দুই-তিন দিন রাতে গরম গরম ভাব ছিল, সেটা আগামী দুই দিন কম থাকবে রাতে। এটা পুরোপুরি স্বাভাবিক নয়।

পূর্বাভাসে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আংশিক মেঘলা থেকে মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শেষ রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারা দেশের নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও হালকা কুয়াশা পড়তে পারে। পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x