ঝড়ের দিনে আম কুড়াতে সুখ!

ঝড়ের দিনে আম কুড়াতে সুখ!
ছবি: সংগৃহীত।

পল্লিকবি জসিম উদদীন তাঁর ‘মামার বাড়ি’ কবিতায় লিখেছেন—‘ঝড়ের দিনে মামার দেশে/আম কুড়াতে সুখ,/পাকা জামের শাখায় উঠি/রঙিন করি মুখ।’ কবির সঙ্গে আমি একমত হতে পারি না।

ঝড়ের দিন অর্থাৎ দুর্যোগকালীন সময়ে আম কুড়ানো আমাদের সুখানুভূতি দেয় না। আবার এমন দুর্যোগে জাম গাছের শাখায় ওঠার প্রশ্নই ওঠে না।

বর্তমান প্রজন্মের অনেকের কাছে ‘ঝড়’ হলো ফ্যান্টাসি, উপভোগের বিষয়। গত বছর সুপার সাইক্লোন আম্ফানের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, বহু মানুষকে দেখেছি যারা এই দুর্যোগ নিয়ে রীতিমতো ট্রল করেছে। এদের বেশিরভাগই দেশের ঝুঁকিমুক্ত এলাকার বহুতল ভবনের বাসিন্দা।

আবহাওয়াবিদরা ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন, ২৬ মে বিকাল বা সন্ধ্যায় উপকূলে আঘাত হানতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’। এ কারণে আগেই উপকূলের লাখ লাখ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে নিয়েছে সরকার। ভুক্তভোগী অর্থাৎ যারা ঝুঁকিপূর্ণ জেলাগুলোতে থাকেন কিংবা যাঁদের আপনজনরা থাকেন, তাঁরাই দুর্যোগ অনুধাবন করতে পারেন।

দুর্যোগ নিয়ে কেউ উপহাস করবে না, এটাই প্রত্যাশা করি। ঝড়ে গাছের আম পড়ে গেলে সেটাকে ‘ক্ষতি’ বলে। যারা ক্ষতির ভেতর সুখানুভূতি খুঁজে পান, তাদের মানসিক পরিপক্বতা নিয়ে প্রশ্ন থেকে যায়।

ইত্তেফাক/এএইচপি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x