করোনার চেয়ে ধূমপানে ১৩ গুণ বেশি মৃত্যু

করোনার চেয়ে ধূমপানে ১৩ গুণ বেশি মৃত্যু
ছবি: সংগৃহীত

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিটের মহাপরিচালক ড. মো. শাহাদৎ হোসেন বলেছেন, দেশে প্রতিবছর গড়ে ১২ লাখ লোক ধূমপানজনিত রোগে ভোগেন। এই রোগে প্রতিবছর ১ লাখ ৬১ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। যা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর চেয়ে ১৩ গুণ বেশি।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) মুজিববর্ষ ও বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস ২০২১ উপলক্ষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক আলোচনা সভায় তিনি এ তথ্য জানান।

No description available.

ড. মো. শাহাদৎ হোসেন বলেন, সবাই যখন তামাকমুক্ত দেশ গড়তে চাইছে, তখন এক শ্রেণি বলছে সরকার এই খাত থেকে অনেক বেশি রাজস্ব পাচ্ছে। ২০১৭ সালে সরকার তামাক থেকে রাজস্ব পেয়েছে ২২ হাজার ২৬৬ কোটি ৫১ লাখ টাকা। কিন্তু তামাকজনিত রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের পেছনে ব্যয় করেছে ৩০ হাজার কোটি টাকার বেশি। আর শুধু তামাকজনিত রোগের চিকিৎসায় ব্যয় হয়েছে ৮ হাজার কোটি টাকার বেশি। তামাক উৎপাদন ও চাষে জড়িতদের আয়ু অন্যান্য মানুষের তুলনায় অনেক কম।

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়া বলেন, তামাকের প্রতিটি ক্ষেত্রেই পরিবেশ, জনস্বাস্থ্য ও অর্থনীতির ক্ষতি হয়। বিড়ি-সিগারেটের ধোঁয়ায় সাত হাজারের বেশি ক্ষতিকর উপাদানের প্রায় ৭০টি ক্যান্সার সৃষ্টির জন্য দায়ী।

No description available.

তিনি আরও বলেন, তামাক সেবনের কারণে ক্যান্সার, হৃদরোগ, স্ট্রোক, ডায়াবেটিস ও ক্রনিক লাং ডিজিজসহ বিভিন্ন অসংক্রামক রোগে প্রতিবছর পৃথিবীতে ৮০ লক্ষাধিক মানুষ মারা যায়।

ভার্চ্যুয়াল এ আলোচনা সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিসহ বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসন, সিভিল সার্জন অফিসের কর্মকর্তারা, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, জাতীয় তামাক নিয়ন্ত্রণ সেল, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরসহ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা, তামাক নিয়ন্ত্রণে কর্মরত বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা সংযুক্ত ছিলেন।

ইত্তেফাক/এনএ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x