বই আলোচনা

মায়ের স্মৃতির দর্পণ

মায়ের স্মৃতির দর্পণ
বইয়ের প্রচ্ছদ

মাকে নিয়ে অনেক বইই রচিত হয়েছে। গোর্কির ‘মা’, আনিসুল হকের ‘মা’ রেজা ঘটকের ‘জননী’, আরিফ আজাদের ‘মা মা মা এবং বাবা’; মোহাম্মদ আফজাল হোসেন মাসুমের ‘মা’; ডাক্তার আব্দুর রহিমের ‘ওগো আমার মা’; গ্রেজিয়া দেল্লেদার ‘মা’. আহমেদ রিয়াজের ‘মা আমার মা’ ইত্যাদি অসংখ্য বইয়ের সন্ধান মেলে। রংপুরের জনৈক অধ্যাপকের মাকে নিয়ে লেখা ‘চোখের জলে বুক ভেসে যায়’ শিরোনামে (লেখকের নাম ভুলে গেছি) একটি আত্মজীবনীমূলক সুলিখিত চমৎকার বইয়ের সন্ধানও পাওয়া যায়। এসব বইয়ের মধ্যে অধিকাংশই আত্মজীবনীমূলক। এমনই আত্মজীবনীমূলক ক্ষুদ্র পরিসরে মায়ের কথা লিখেছেন তরুণ লেখক ও নাট্যশিল্পী মাসুম মাহমুদ। বইটি প্রকাশ করেছে পরিবার পাবলিকেশনস। মাসুম মাহমুদ তরুণ লেখক হলেও এ পর্যন্ত নয়টি বই প্রকাশিত হয়েছে। ‘মাকে আমার পড়ে মনে’ বইটির শিল্পসম্মত প্রকাশনার জন্য হাতে নিলে পড়তে ইচ্ছে করবে না এমন লেখাপড়া জানা খুব কম মানুষই পাওয়া যাবে বলে বিশ্বাস। বইটির প্রতি পাতায় দৃষ্টিকাড়া ছবি, কাগজ, মুদ্রণ, বাঁধাই সব মিলিয়ে পাঠককে প্রথমেই চুম্বকের মতো টানবে। এই বই শিশুতোষ মনে হলেও বুড়োতোষ বইয়ের পাঠককেও সমানাভাবে আকৃষ্ট করবে। এবার আসি বইয়ের লেখার প্রসঙ্গে। বইটির লেখাতেও রয়েছে লেখকের কৌশলী ও নিপুণ দক্ষতা। কয়েক পৃষ্ঠায় লেখক মাকে যেভাবে চিত্রিত করেছেন তা পাঠককে বিস্মিত করে। স্মৃতির অতল আধার থেকে সযত্নে তুলে আনা হয়েছে কেবল মূল্যবান অংশটুকুই। শৈশব থেকে শুরু করে লেখকের জীবনের তরুণ বয়স এবং মায়ের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত শেকড়ের কথাগুলো দিয়েই অনবদ্য বইটি রচিত। মায়ের স্বপ্নকে লেখকের বুকে লালন করে কীভাবে বাস্তবে রূপ দিয়েছেন তারও রূপকাঠির স্পর্শ এই বইয়ে চিত্রিত হয়েছে। ‘বাক্বা বেডা’ ‘বেক্কল বেডা’ বৃহত্তর ময়মনসিংহের পূর্বাঞ্চল ও বৃহত্তর সিলেটের এই দুটি আঞ্চলিক শব্দ লেখক কয়েক জায়গায় উল্লেখ করেছেন। বাক্কা মানে খুব ভালো বা চমৎকার আর বেডা মানে বেটা বা পুরুষ। বেক্কল মানে বোকা। মায়ের আদরে কীভাবে একজন শিশু ধীরে ধীরে বড়ো হয়; বাড়ির আঙিনা ছাপিয়ে দুরন্ত বালকেরা কীভাবে দূরের প্রান্তরে পৌঁছে যায় তার চিত্রও এখানে দৃশ্যমান হয়। এই বইয়ের পাতায় পাতায় পাঠক (বিশেষ করে গ্রামে বড়ো হওয়া) যেন নিজেকে দেখতে পায়, বইটি যেন হয়ে ওঠে পাঠকের স্মৃতির দর্পণ। শেষ দুটি পাতায় এসে পাঠককে থমকে দাঁড়াতে হয়; চোখ মুছতে হয়। মায়ের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে পাঠকের মনে একদলা কষ্ট ও অশ্রুসিক্ত ঝাপসা দৃষ্টিতে স্মৃতিময় গীতিময় ঝরঝরে ভাষার কাব্যকথার পৃষ্ঠাটি ফেড হয়ে ফ্রিজ হয়। এত অল্প কথায় যে এক মায়ের স্মৃতিকথা লেখা যায় তা সত্যি মুগ্ধ করার মতো। বইটি অসংখ্য পাঠকের হাতে পৌঁছে যাক সে কামনা করি। বইটি পাওয়া যাবে বইমেলার ৩০ নাম্বার স্টল পরিবার পাবলিকেশন ছাড়াও অনলাইন বুক শপ বইপরিবার.কম এবং রকমারিতে।

বই : ‘মাকে আমার পড়ে মনে’

লেখা : মাসুম মাহমুদ

প্রচ্ছদ ও অলংকরণ : মানব

প্রকাশনা : পরিবার পাবলিকেশন্স

দাম : ২০০ টাকা

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x