যে কারণে ঘরে থাকলেও সানস্ক্রিন দেবেন

যে কারণে ঘরে থাকলেও সানস্ক্রিন দেবেন
[প্রতীকী ছবি]

ত্বকের ক্ষতি শুধু মাত্র সূর্যের ইউভিএ এবং ইউভিবি রশ্মির কারণেই হয় না। বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিকস ডিভাইস যেমন ফোন এবং ল্যাপটপের স্ক্রিনের আলোর মাধ্যমেও ত্বকের ক্ষতি হয়ে থাকে।

আমরা প্রায় সকলেই জানি সানস্ক্রিন শুধু মাত্র ঘরের বাইরে গেলে লাগাতে হয়। কিন্তু, সানস্ক্রিন ঘরের ভেতরেও লাগাতে হবে এটা সত্যি অনেক বেশি অবাক করা ব্যাপার।

চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ, ডা. জোশুয়া সরিন তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, ঘরের ভেতরে থাকলেও সানস্ক্রিন লাগানো টা কত বেশি জরুরি আমাদের ত্বকের জন্য।

পোস্টে তিনি জানিয়েছেন, সানস্ক্রিন সূর্যয়ের রশ্মি থেকে ক্ষত ত্বককে রক্ষা করে। পক্ষান্তরে, এটা মোটেও ভুলে যাওয়া যাবে না, ইউভিএ রশ্মির কারণে ত্বকে বয়সের ছাপের পাশাপাশি ক্যান্সারও হয়ে থাকে। সেই ক্ষতিকারক রশ্মি ঘরের ভেতরে থাকলেও ত্বক পর্যন্ত পৌছাতে পারে। ইউভিএ রশ্মির দৈর্ঘ্য ইউভিবি রশ্মির তুলনায় অনেক বেশি দীর্ঘ। তাই এ রশ্মি ত্বকে অনেক বেশি স্থায়ী হতে পারে এবং ত্বকের কোলাজেনকে নষ্ট করে ফেলতে থাকে। এ রশ্মির কারণেই মূলত ত্বকে বলি রেখা সৃষ্টি হয়। এই ইউভিএ রশ্মি এতটাই শক্তিশালী যে এটা আকাশে মেঘ থাকলেও ত্বকে প্রবেশ করতে সক্ষম। এমনকি জানালা দিয়েও খুব সহজেই ঘরে ঢুকতে পারে।

কিন্তু শুধুই যে ইউভি রশ্মি ত্বকের ক্ষতির জন্য দায়ী এমনটা নয়। ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসের নীলাভ আলোর কারণেও ত্বকের নানা ধরনের ক্ষতি হতে পারে। বর্তমানে সবথেকে বেশি সময় ধরে আমাদের বসে থাকতে হয় এ সকল ডিভাইসের সামনে। তাই অবশ্যই ঘরে থাকলেও ত্বকে সানস্ক্রিন লাগানো উচিৎ। যদিও নীলাভ এ আলো সূর্যের আলোর মত অতিরিক্ত ক্ষতি করতে পারে না কিন্তু ত্বকের মাঝে নানা ধরনের জটিলতা সৃষ্টি করতে পারে।

তাই নিজের ত্বককে সুস্থ রাখতে হলে, ঘরের ভেতরে থাকলেও সানস্ক্রিন লাগাতে হবে। পাশাপাশি, ত্বকের শুষ্ক হয়ে আসা রোধে ত্বকে ভালো মানের ও নিজের ত্বকের ধরন বুঝে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট সিরাম ব্যাবহার করতে হবে।

ইত্তেফাক/এনএসএন

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x