পার্টিতে পারফেক্ট সাজ!  

পার্টিতে পারফেক্ট সাজ!  
মডেল: রুমা, ইমি ও মারিয়া। পোশাক ডিজাইন ও ছবি সৌজন্যে: এডলফ খান

গরম অথবা বৃষ্টির মৌসুমে পার্টি থাকবেই। পার্টি তো আর শীতেই সীমাবদ্ধ না। তাই পার্টি সাজে চাই রূপের বর্ণিলতা আর চুলের সাজে বৈচিত্র্যতা। যাতে সকলের নজর আপনার দিকেই থাকে। বর্ষাকালের আবহাওয়া এবং অতিরিক্ত ঘামের জন্য মেকআপ স্থায়ী করা কিছুটা কষ্টসাধ্য ব্যাপার তো বটেই। সেজন্য কী পার্টিতে সাজসজ্জা থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে, উত্তরটা হচ্ছে একদমই না।

যারা এই গরম-বৃষ্টির সময়টাতে জমকালো কোনো অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের পরিকল্পনা করছেন, তারা অনুষ্ঠানের ২-৩ দিন আগে অন্তত একবার ফেসিয়াল করে ফেলুন। এতে যখন মেকআপ করবেন, তখন তা সুন্দরভাবে ত্বকের সাথে মিশে যাবে। আর নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন বা নিজের সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতে মেকআপের তুলনা নেই।

প্রথমে মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিয়ে গোলাপজলে ভেজানো তুলা মুখে-ঘাড়ে-গলায় বুলিয়ে নিন। তার মিনিট কয়েক পর অপেক্ষা করে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন মুখে। আরো কয়েক মিনিট পর প্রাইমার লাগিয়ে নিন। এবার স্কিন-টোনের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন লাগানোর পালা। ব্রাশ দিয়ে ভালোভাবে মুখে, কানে, গলায়, ঘাড়ে ব্লেন্ড করে নিন ফাউন্ডেশন। ত্বক খুব শুষ্ক ঠেকলে ফাউন্ডেশনে কয়েক ফোঁটা স্কিনকেয়ার অয়েল মিশিয়ে নিতে পারেন।

মুখে যদি কোনো দাগ থাকে তাহলে সামান্য কনসিলার লাগিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। মুখে ইনার গ্লো আনতে এক শেড হালকা কনসিলার লাগিয়ে নিন মুখের মাঝখানের জায়গাগুলোয় অর্থাৎ কপালের মাঝখানে, চোখের নীচে, নাকের উপর এবং থুতনিতে। এই অংশগুলো বাকি মুখের তুলনায় উঁচু বলে আলোর প্রতিফলন হয় এখানে। তাই সামান্য উজ্জ্বল দেখালে ভালো লাগবে। তবে বেশি হালকা শেডের কনসিলার ব্যবহার করলে ভালো দেখাবে না। এবার কমপ্যাক্ট লাগিয়ে নিন।

আই মেকআপের প্রথমে আইব্রো পেন্সিল দিয়ে ভ্রু শেপ করে নিতে হবে। স্কিন টোন এবং চুলের রঙের সঙ্গে মানানসই শেডের পেন্সিল বেছে নেবেন। ভ্রুর স্বাভাবিক শেপটাই খানিকটা নিখুঁত করে নিন। সামান্য কনসিলার ব্লেন্ড করে নিন চোখের পাতায়, এতে আইশ্যাডো ভালোভাবে ফুটবে। প্রথমে ম্যাট ব্রাউন শ্যাডো নিয়ে চোখের ক্রিজে লাগিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। তারপর পোশাকের রঙের সঙ্গে কনট্রাস্ট করে আইশ্যাডোর শেড বাছতে পারেন। কিংবা নিউট্রাল শেডের শ্যাডোও লাগাতে পারেন। চোখের উপরের এবং নীচের পাতার বাইরের কোণে একটু গাঢ় শেডের আইশ্যাডো ব্যবহার করুন। ভ্রুর ঠিক নীচে আর চোখের উপর-নীচের পাতার ভেতরের কোণে পছন্দ মতো হালকা শিমার শেড লাগিয়ে নিতে পারেন। এতে চোখ উজ্জ্বল লাগবে।

এবার চোখের শেপ অনুযায়ী সরু বা মোটা করে লাইনার লাগিয়ে নিন। নীচের পাতায় আই পেন্সিল ব্যবহার করতে পারেন। এক্সপেরিমেন্ট করতে চাইলে কালো বা ব্রাউনের বদলে ট্রাই করতে পারেন অলিভ, টিল, ব্লু। চোখের পাতায় মাসকারা লাগালেই আই মেকআপ সম্পূর্ণ। ফলস আইল্যাশও ব্যবহার করেন অনেকে। যদি সেরকম কোনো এফেক্ট আনতে চান, তা হলে প্রথমে একবার মাসকারা লাগিয়ে নিন চোখের পাতায়। সামান্য পাউডার ডাস্ট করে নিন। তারপর আরেকবার মাসকারা লাগিয়ে নিন।

ঠোঁটের জন্যও শেড বাছতে হবে স্কিন টোন এবং অবশ্যই পছন্দ অনুযায়ী। লাল, মভ, চকোলেট, মেরুনের মতো গাঢ় শেড বা বেবি পিংক, কোরাল, ব্রাউনের মতো হালকা শেড থেকে বেছে নিতে পারেন। তবে চোখ আর ঠোঁট, দুইটাই খুব লাউড লাগলে ভালো দেখাবে না। এবার সামান্য ব্লাশার লাগিয়ে নিন গালে। ব্রাশে সামান্য হাইলাইটার নিয়ে ভ্রুর আর্চে, নাকের ডগায়, চিক বোনে এবং উপরের ঠোঁটের মাঝের অংশে লাগিয়ে নিন। হাইলাইটার না থাকলে গোল্ডেন বা সিলভার আইশ্যাডোও লাগাতে পারেন। এতে একই কাজ হবে।

সবশেষে আসে চুলের সাজ। অনুষ্ঠানের সঙ্গে মিল রেখে পার্টিতে যাওয়ার সময় চুল বেঁধে নিন। চুল খোলা রাখতে চুল স্ট্রেইট, ব্লো ড্রাই বা স্পাইরাল করতে পারেন। লম্বা চুলে করতে পারেন বেণুনি কিংবা খোঁপা। তবে যেভাবেই সাজুন, মাথায় রাখুন কোথায় কোন সময়ে কেমন পার্টিতে যাচ্ছেন। নিজের ব্যক্তিত্ব ফুটে উঠে সাজে। তাই মনের সঙ্গে আশপাশের পরিস্থিতি মিলিয়ে নিজেকে সাজের মাধ্যমে করুন পরিপূর্ণ। আর চমকে দিন সবাইকে আপনার রূপের আলোতে।

ইত্তেফাক/আরএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x