ঘরজুড়ে উৎসবের রঙ

ঘরজুড়ে উৎসবের রঙ
ছবি কৃতজ্ঞতা : প্রথিতযশা নৃত্যশিল্পী লুবনা মারিয়াম এর বাসস্থান  

ঈদ উৎসবে ঘরকে সাজিয়ে নিলে আনন্দ আরো বেড়ে যায়। এর জন্য নতুন আসবাব কিনতে হবে এমনটা নয়। দীর্ঘদিন থেকে একই স্থানে থাকা আসবাবগুলোর ছোটখাটো পরিবর্তন করেও বদলে ফেলতে পারেন অন্দরের সাজ। ঘরজুড়ে উৎসবের রঙকে আরো বর্ণিল করতে সাজিয়ে ফেলুন আপন অন্দরকে।

সাধারণত ফ্ল্যাটের একেকটি ঘর একেক ধরনের। কিন্তু অতিথি আপ্যায়ন করা হয় ড্রইংরুমে। তাই ঘরটি সুন্দর করে গুছিয়ে রাখুন। অপরিষ্কার পর্দা ধুয়ে ইস্ত্রি করে নিন, নতুনের মতো ঝকঝকে লাগবে। বিবর্ণ কাঠের আসবাবে পলিশ করে নিলে চকচকে হয়ে উঠবে। এক ঘরের শোপিস আরেক ঘরে অন্যভাবে অন্য স্থানে সাজিয়ে নিতে পারেন।

ড্রইংরুমটি বড় হলে অথবা ফলস সিলিং বসানো থাকলে সোফার এক পাশে রাখতে পারেন গাছের আদলের পেনডেন্ট লাইট। দেয়ালে সুন্দর একটি পেইন্টিং টানিয়ে দিতে পারেন। আলো-আঁধারির মায়ায় সাজাতে চাইলে ঘরের কোণে রাখতে পারেন ল্যাম্পশেড। ঘর দেশীয় কায়দায় সাজানো হলে বাঁশ বা বেতের তৈরি ল্যাম্পশেডও ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া বিভিন্ন ইনডোর প্লান্ট দিয়েও ঘরের সাজে নতুনত্ব নিয়ে আসা সম্ভব। মেঝেতে শতরঞ্জি বা কার্পেটটি বদলে নতুন ডিজাইনের একটি বিছিয়ে দিন। পাশেই আরামদায়ক কিছু কুশন রাখুন। একটি উইন্ড চাইমও ঝুলিয়ে দিন। এতে অন্দরের একঘেয়েমিটা কেটে যাবে।

বন্ধুদের সাথে আড্ডা বা নিরিবিলি সময় কাটানো সবকিছুই শোবার ঘরকে কেন্দ্র করে থাকে। তাই শোবার ঘরে পরিবর্তন আনতে বিছানার চাদর ও পর্দা বদলে ফেলতে পারেন কিংবা পুরাতনগুলো ধুয়ে ইস্ত্রি করে নিতে পারেন। পাশাপাশি পরিবর্তন করে নিতে পারেন টেবিল ল্যাম্পটিও অথবা অন্য ঘরের একটা এনে শোবার ঘরে রাখুন। টেবিল, বুকশেলফ থাকলে গুছিয়ে নিন। ঘরের ফ্যান ও লাইটও মুছে নিন। আর শোবার ঘরটিকে উৎসবের রঙে বর্ণিল করতে বিভিন্ন শেপের মরিচ বাতিও ব্যবহার করতে পারেন। এগুলো বেশ কম দামে বাজারে কিনতে পাওয়া যায় এবং ঘরের সৌন্দর্য সহজেই বদলে দিতে পারে।

ঈদে আমন্ত্রিত অতিথিদের খাবার পরিবেশন করতে হয় ডাইনিং রুমে। খাবার টেবিলে যে শুধু খাবারই থাকবে তা কিন্তু নয়, এক কোণায় রেখে দিতে পারেন পছন্দের ফুলদানি। যদি টেবিল ক্লথ ব্যবহার করেন তাহলে পরিষ্কার করে নিন বা নতুন কিনে নিতে পারেন। তবে কেনার আগে দেয়াল ও পর্দার রঙের সাথে সামঞ্জস্য রেখে কিনুন। চাইলে ক্লথের পাড় ঘেঁষে লেইসও লাগিয়ে নিতে পারেন। টেবিল ম্যাটগুলোও পরিবর্তন করতে পারলে ভালো। কাঁটাচামচ, ছুরি, ন্যাপকিন ইত্যাদি টেবিলের একপাশে সাজিয়ে রাখতে পরেন। এছাড়া অতিথিদের নজর কাড়তে নকশা আঁকা পানদানি, লবণদানি রাখতে পারেন। এই ছোট ছোট বিষয়গুলো আপনার ঈদের আনন্দকে বাড়িয়ে তুলবে বহুগুণে।

ইত্তেফাক/আরএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x