ঈদের আগে চুলের যত্ন

ঈদের আগে চুলের যত্ন
ছবি: রফিকুল ইসলাম র‌্যাফ ও ফারহান ফয়সাল 

বর্ষার ভেজা স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ার চিত্রপটে হাজির হয়েছে ঈদ। কোবিড অতিমারির মাঝে ঈদ বলেই স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়টি বিবেচনা করে মেয়েদের সাজটা হবে ঘরকেন্দ্রিক। কিন্তু বর্ষায় চুল পড়া থেকে স্ক্যাল্পের নানা সমস্যায় হতে হয় নাজেহাল। ঈদে নিজেকে সুন্দর ও আকর্ষণীয় করে তুলতে চুলের যত্ন নিতে হবে। তাহলে জেনে নিন এই বর্ষায় ঈদের আগে চুলের যত্ন কীভাবে নেবেন।

বৃষ্টিতে ভিজবেন না

ভেজা চুলে সমস্যা ধাওয়া করে বেড়ায়। তাই বৃষ্টির দিনগুলোতে চুল শুকনো রাখার চেষ্টা করুন। চুল যদি একবার টের পায় যে বর্ষার বৃষ্টি আপনি মাথায় মাখবেন তাহলে রুক্ষ, তেলতেলে স্বভাব নিয়ে একদম নাজেহাল করে ছাড়বে। কারণ, বৃষ্টির পানি মানেই একগাদা নোংরা আর জীবাণুর আশ্রয়। তাছাড়া বর্ষার পানিতে অ্যাসিডের পরিমাণও সাধারণ পানির তুলনায় বেশি থাকে। এতে চুলের মারাত্মক ক্ষতি হয়। তাই চেষ্টা করুন, ঈদের আগে বৃষ্টিতে না ভিজতে এবং যতটা সম্ভব চুল শুকনো রাখতে। প্রয়োজনে ছাতার বদলে রেইনকোট ব্যবহার করুন। এতে বৃষ্টিতে বের হতে বাধ্য হলেও চুল ভেজার সম্ভাবনা অনেকটা কমবে।

প্রতিদিন শ্যাম্পু নয়

ঈদে চুল সুন্দর রাখতে প্রতিদিন শ্যাম্পু করবেন না। কারণ এখন বর্ষাকাল। এই মৌসুমটাতে চুলের গোড়া নরম থাকে। তাই অতিরিক্ত শ্যাম্পু বা ঘষাঘষি করলে চুল পড়া বেড়ে যাবে। সপ্তাহে দুই দিন শ্যাম্পু করুন। খুব প্রয়োজন পড়লে বা চুল অতিরিক্ত তৈলাক্ত হলে, তিনদিন করতে পারেন। মাইল্ড অথচ ডিপ ক্লেনজিং শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন। শ্যম্পু করার আগে একবার চুল আঁচড়ে নিতে পারেন। অ্যান্টি-হেয়ারফল শ্যাম্পুও ব্যবহার করতে পারেন। সরাসরি শ্যাম্পু চুলে না লাগানোই ভালো। সামান্য পানিতে অল্প শ্যাম্পু গুলে, অল্প অল্প করে চুলে লাগান। আর প্রতিবার শ্যাম্পু করার সময়, দুইবার শ্যাম্পু করবেন। চুল ভালোভাবে ধুয়ে নিতে ভুলবেন না।

তেল ব্যবহার করুন

তেল চুলের পুষ্টির অন্যতম প্রধান উপায়। তাই চুলকে মজবুত রাখতে, তেল ম্যাসাজ করুন। শ্যাম্পু করার আগের দিন রাতে নারকেল তেল বা অলিভ অয়েল অল্প গরম করে হালকা হাতে স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করে নেবেন। তবে ত্বক যদি তৈলাক্ত হয় তাহলে সারারাত তেল লাগিয়ে রাখবেন না। সকালে শ্যাম্পু করার আগে ১ ঘণ্টা তেল লাগিয়ে রেখে শ্যাম্পু করে নিন। কখনোই অতিরিক্ত তেল লাগাবেন না। এতে শ্যাম্পু বেশি ব্যবহার করতে হবে, যা চুলের পক্ষে মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়।

কন্ডিশনিংয়ের সঠিক পদ্ধতি

শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার ব্যবহারের সঠিক নিয়ম অনেকেই জানেন না। কন্ডিশনিংয়ের মানে কিন্তু একগাদা প্রোডাক্ট ব্যবহার করা নয়। অল্প করে কন্ডিশনার নিন। যেটা হতে পারে একটি এক টাকার কয়েনের সমপরিমাণ। শুধুমাত্র চুলের ডগার দিকে লাগান। এ সময় যেনো চুলে অতিরিক্ত পানি না থাকে। তারপর চিরুনি দিয়ে চুলের নিচের দিকটা আঁচড়ে নিন। এতে কন্ডিশনার ভালোভাবে ছড়িয়ে পড়বে। স্ক্যাল্পে কিন্তু ভুলেও কন্ডিশনার লাগাবেন না। কন্ডিশনার লাগিয়ে ৩ থেকে ৪ মিনিট অপেক্ষা করে খুব ভালোভাবে চুল ধুয়ে নেবেন।

প্রয়োজনীয় টিপস

চুল বেঁধে রাখবেন না। বর্ষাকালের স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ায় চুল এমনিতেই নরম হয়ে যায়। খুব শক্ত করে বা ভেজে চুল বেঁধে রাখলে চুলের গোড়া আলগা হয়ে চুল পড়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে, যা আপনার ঈদের সাজকে মাটি করে দিতে পারে। প্রোটিন, আয়রন এবং ওমেগা-৩-ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার ডায়েটে রাখুন। সামুদ্রিক মাছ, পালংশাক, বাদাম, টক দই, স্প্রাউটস বেশি করে খান।

ইত্তেফাক/আরএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x