সংসদের পঞ্চম অধিবেশন চলবে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ২১:০০ | অনলাইন সংস্করণ

  বিশেষ প্রতিনিধি

সংসদ সদস্য মঈন উদ্দিন খান বাদলের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাবের উপর আলোচনা শেষে মোনাজাত করা হয়। ছবি : ফোকাস বাংলা

একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশন বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছে। বিকাল সোয়া চারটায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হয় অধিবেশন। এই অধিবেশন চলবে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত।

 

অধিবেশনের শুরুতে শিরীন শারমিন চলতি অধিবেশনের সভাপতিমণ্ডলী মনোনয়ন দেন। স্পিকার বা ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যদের মধ্যে অগ্রবর্তীজন সংসদ পরিচালনা করবেন। সংসদের চলমান অধিবেশনে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যরা হলেন আ স ম ফিরোজ, মোতাহার হোসেন, জিল্লুল হাকিম, কাজী ফিরোজ রশীদ, সেলিমা আহমেদ।

 

এদিকে সংসদ অধিব্শেন শুরুর আগে এর মেয়াদ নিয়ে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে বসে কার্য-উপদেষ্টা কমিটি। প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। কমিটির সদস্য রওশন এরশাদ, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ওবায়দুল কাদের, রাশেদ খান মেনন, হাসানুল হক ইনু, মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, আনিসুল হক, গোলাম মোহাম্মদ কাদের, আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, নূর-ই-আলম চৌধুরী এবং আবদুস সাত্তার ভুঞা সভায় অংশগ্রহণ করেন।

আরো পড়ুন : চার উইকেটের পতন বাংলাদেশের

সভায় প্রতিদিন বিকাল সোয়া ৪টায় অধিবেশন শুরু করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এছাড়া ৮ থেকে ১০ নভেম্বর পর্যন্ত অধিবেশন মুলতবি রাখার সিদ্ধান্ত হয়। সভায় জানানো হয় এ অধিবেশনে সংসদে উত্থাপণের জন্য ১টি সরকারি বিলের নোটিশ পাওয়া যায়। পূর্বে অনিষ্পন্ন ৫টিসহ মোট ৬টি সরকারি বিল রয়েছে। এর মধ্যে উত্থাপনের অপেক্ষায় ১টি এবং কমিটিতে পরীক্ষাধীন ৫টি বিল রয়েছে। বেসরকারি সদস্যদের নিকট হতে কোনো বিলের নোটিশ পাওয়া যায়নি। পূর্বে প্রাপ্ত ও অনিষ্পন্ন ২টি বেসরকারি বিল রয়েছে। এ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর জন্য ৬৯টি ও সাধারণ প্রশ্ন ১ হাজার ৬০৫টিসহ প্রাপ্ত মোট প্রশ্নের সংখ্যা ১৬৭৪টি। সিদ্ধান্ত প্রস্তাব (বিধি ১৩১) ৯৬টি, মনোযোগ আকর্ষণের নোটিশ (বিধি ৭১) ৫৫টি এবং প্রস্তাব (সাধারণ) (বিধি ১৪৭) ৩টি নোটিশ পাওয়া গেছে। বিধি ১৪৭ তে সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী আনীত ‘জলবায়ু পরিবর্তন, দুর্যোগের আঘাত, জীববৈচিত্র বিনষ্ট হওয়া, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, সুপেয় পানির সংকট, সমুদ্রসম্পদ হ্রাস ইত্যাদি কারণে বিশ্ব আজ ভয়াবহ সংকটের সম্মুখীন। এ কারণে, গ্রহজনিত জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হোক এবং এসব বহুমাত্রিক সংকট মোকাবেলায় বিশ্বের সকল পার্লামেন্ট ও সরকার, জাতিসংঘ ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার মাধ্যমে দ্রুত কার্যকর ও সমন্বিত পদক্ষেপ নেয়া হোক’ শীর্ষক প্রস্তাবের উপর আলোচনা হবে। এ সম্পর্কিত একটি প্রস্তাব স্পেনে অনুষ্ঠিতব্য কপ-২৫ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থাপন করবেন। সংসদের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান সভার কার্যপত্র উপস্থাপন করেন।এ সময় সংসদ সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

ইত্তেফাক/ইউবি