ঢাকা মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২১ °সে


‘ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে সন্ত্রাস-জঙ্গিমুক্ত সমাজ রেখে যেতে চাই’

‘ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে সন্ত্রাস-জঙ্গিমুক্ত সমাজ রেখে যেতে চাই’
ছবি:সংগৃহীত

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি বলেছেন, আমরা ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে একটা শান্তিপূর্ণ সন্ত্রাস ও জঙ্গিমুক্ত সমাজ এবং বাংলাদেশ রেখে যেতে চাই। জনগণ ও পুলিশ যখন এক কাতারে দাঁড়িয়েছে তখন কোনো চ্যালেঞ্জই আর চ্যালেঞ্জ থাকে না। দেশকে মাদকমুক্ত না করতে পারলে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম হারিয়ে যাবে। তাই মাদক নির্মূলে চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন্স মাঠে জেলা পুলিশ আয়োজিত অন্ত:জেলা পুলিশ সুপার মাদক, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী এবং নিরাপদ সড়ক আন্দোলন বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি বলেন, আমরা এখন শুধু অনলাইনের মাধ্যমে জিডির সুবিধা দিচ্ছি। ভবিষ্যতে পুলিশের সকল ডিজিটাল সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, আজ সন্ত্রাস নেই বললেই চলে। ইভটিজিং একটা ব্যাধিতে পরিণত হয়েছিল। আমাদের পুলিশ বাহিনীতো বটেই, নির্বাচিত প্রতিনিধি ও সমাজে সেবকরা সেটি রুখতে আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। সেইজন্য সামাজিক এই অসঙ্গতি ও ব্যাধিগুলো চিহ্নিত করে একে একে দূর করতে পেরেছি।

আরও পড়ুন: উত্তাল সমুদ্রে বিকল বোট থেকে মালয়েশিয়াগামী ১১৯ রোহিঙ্গা উদ্ধার

এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘চেতনায় অম্লান’ জাতির জনকের ভাষণ সম্বলিত ম্যুরাল এবং কোতোয়ালী মডেল থানা ও ভালুকা মডেল থানা অনলাইন জিডির (লস্ট ও ফাইন্ড) পরীক্ষামূলক উদ্বোধন করেন। এসময় প্রধান অতিথি ‘চেতনায় অম্লান’ প্রাঙ্গণে একটি আমের চারা রোপন করেন।

ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি, ফাহমি গোলন্দাজ বাবেল এমপি, মনিরা সুলতানা এমপি, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু, লেখক ও শিক্ষাবিদ ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবাল, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. লুৎফুল হাসান, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান, বিভাগীয় কমিশনার খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান, ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক খোকা, দেশ বরেণ্য যাদুশিল্পী জুয়েল আইচ, জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান, আনন্দমোহন কলেজের অধ্যক্ষ নারায়র চন্দ্র ভৌমিক, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং এর সভাপতি অধ্যাপক আমীর আহাম্মদ চৌধুরী রতন ও জেলা নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি এডভোকেট আনিসুর রহমান খান প্রমুখ।

মাদক, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদমুক্ত সমাজ গড়তে এবং মহাসমাবেশকে সাফল্যমন্ডিত করতে পুলিশের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা, জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কয়েক হাজার শিক্ষার্থী ও কমিউনিটি পুলিশিং এর সদস্যবৃন্দ যোগদান করেন।

ইত্তেফাক/এএএম

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১০ ডিসেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন