অনিয়ম করলে মন্ত্রী-এমপিদের বিমানে চড়া বন্ধ, সর্তক করলেন প্রধানমন্ত্রী

অনিয়ম করলে মন্ত্রী-এমপিদের বিমানে চড়া বন্ধ
ছবি: ফোকাস বাংলা

অনিয়ম করলে মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের বিমানে চড়াই বন্ধ হয়ে যাবে বলে সর্তক করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নতুন দুই বিমান ‘সোনার তরী’ ও ‘অচিন পাখি’ উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে ড্রিমলাইনার ৭৮৭-৯ সিরিজের নতুন এই দুই বিমান যোগ করা হয়। একই সঙ্গে শাহজালাল বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করা হয়।

বিমানবন্দরের নিরাপত্তা সংক্রান্ত নিয়মাবলী সবাইকে মেনে চলার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় তিনি মন্ত্রী, এমপি ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা যখন বিদেশে যান, তখন যেভাবে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়, ঠিক সেইভাবে সবাইকে সেটা মেনে নিতে হবে। সেখানে কেউ কোনো বাধা দিতে পারবেন না। যদি কেউ বাধা দেন, তাহলে ভবিষ্যতে বিমানে চড়াই বন্ধ হয়ে যাবে। অন্তত সেটা আমি করব।’

কোনো কাজে অনিয়ম হলে সেই খবর তার কাছে চলে আসে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘একটা কথা মনে রাখবেন। আসলে আমার তো কোনো কাজ নেই। সারাদিন আমি দেশের কাজই করি। কাজেই কোথায় কী হয়, না হয়, টুকটাক খোঁজ-খবর নেওয়ার চেষ্টা করি। কাজেই অনিয়ম বা ব্যত্যয় ঘটাতে গেলে সঙ্গে সঙ্গে আমার কাছে কিন্তু খবর চলে আসে। এটা সবাইকে মনে রাখতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ আমরা তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করলাম। এখানে কার্গো বিমান নামার ব্যবস্থা থাকবে। কার্গো ভি‌লেজ গ‌ড়ে তোলা হ‌বে। তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ করাটা বিশাল একটা কর্মযজ্ঞ। আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন অনুযায়ী বাংলাদেশকে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত এবং উন্নত দেশ হিসেবে গড়তে চাই। এই লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা শুধু বিমান নয় অন্য সেক্টরেও উন্নয়ন করছি। যে কারণে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে।’

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত