সিটি নির্বাচনে উত্তাপ, বিএনপির ওয়াক আউট  

প্রকাশ : ১৫ জানুয়ারি ২০২০, ০৪:২১ | অনলাইন সংস্করণ

  ইত্তেফাক রিপোর্ট

ফাইল ছবি

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের উত্তাপ ছড়িয়েছে জাতীয় সংসদে। এই ভোট নিয়ে মঙ্গলবার অনির্ধারিত আলোচনায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পাল্টাপাল্টি বক্তব্যের জের ধরে জাতীয় সংসদ থেকে ওয়াক আউট করে বিএনপি।

অনির্ধারিত আলোচনায় বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেন, ‘সামনে ঢাকা সিটি করপোরেশনের গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচন। এই নির্বাচন কী আসলেই নির্বাচন হবে? এতে কী জনগণ ভোট দিতে পারবে? এই নির্বাচনের পরিবেশ কী সরকার নিশ্চিত করতে পারবে? এই বিষয়ে দায়িত্বশীলদের থেকে উত্তর পেতে চাই। এই নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করা এবং নির্বাচনকে নিয়ে যে সহিংসতা চলছে তা বন্ধের দাবি করছি। না করলে আমরা সংসদ থেকে ওয়াক-আউট করব।’

হারুনুর রশীদ বলেন,‘ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। মন্ত্রী-এমপিরা প্রচারে অংশগ্রহণের কোনো সুযোগ নেই। এই আইন আপনারা করেছেন। আপনারা আইন করে আপনারাই তা লঙ্ঘন করছেন।’

হারুনুর রশীদের বক্তব্যের পর বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, ঢাকা সিটি নির্বাচন উপলক্ষে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যরা প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইবেন না। তবে, তারা মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠানে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে রাজনৈতিক বক্তব্য দেবেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, যতক্ষণ বিএনপি নির্বাচনে না জেতে ততক্ষণ নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয় না। হারুনুর রশীদের বক্তব্যেও তা প্রমান হয়েছে।

আরো পড়ুন : ৬ জাতির বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল আজ শুরু

তোফায়েল বলেন, ঢাকা সিটি নির্বাচন শুরুর আগে থেকেই বিএনপি বলা শুরু করেছে নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে না। এটা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তিনি বলেন, সংসদ সদস্যরা সরকারি সুবিধাভোগী নন। গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির কথা বলা হয়েছে, বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদ প্রধানমন্ত্রী ছিলেন, তিনি কি গুরুত্বপূর্ণ নন।

তোফায়েল বলেন, সবকিছুতেই বিএনপির নেগেটিভ (নেতিবাচক) দৃষ্টিভঙ্গি। যেটা আমরা করি সেটাতেই তাদের বিরোধিতা। এ জন্য আমি হাসতে হাসতে বলেছিলাম বিএনপি মানে এটা হতে পারে বাংলাদেশ নেগেটিভ পার্টি।’

সরকারি দলের সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু বলেন, বিএনপির সব সময় নেগেটিভ নির্বাচন ও নেগেটিভ পলিটিকস করে আসছে। তারা ক্ষমতায় আসার জন্য অন্য পথ অবলম্বনের চেষ্টা করে। নির্বাচন বিমুখতা তা প্রমান করেছে। তোফায়েল আহমেদ ও আমির হোসেন আমুর বক্তব্যের পর সংসদ থেকে ওয়াক আউট করেন বিএনপির সংসদ সদস্যরা।

ইত্তেফাক/ইউবি