‘বাসায় বসে জুম মিটিংয়ে আপ্যায়ন ব্যয় কেন লাগবে’

‘বাসায় বসে জুম মিটিংয়ে আপ্যায়ন ব্যয় কেন লাগবে’
ন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। ছবি: ফাইল

বাসায় বসে জুম সফটওয়ার দিয়ে মিটিং করে আপ্যায়ন ব্যয় বাবদ ৫৭ লাখ টাকা দেখানো হয়েছে। যা নিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পে অস্বাভাবিক খরচ বন্ধে বৃহস্পতিবার সচিবদের সঙ্গে বৈঠক করেন পরিকল্পনামন্ত্রী। এরপর এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

সরকারের অর্থ যে জনগণের তা সচিবদের স্মরণ করে দেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমরা জনগণের অর্থ নিয়ে ইচ্ছাকৃত বা অনিচ্ছাকৃতভাবে নয়-ছয় করতে দেব না।’

বিষয়টি নিয়ে আইন সংশোধন করার চিন্তাভাবনা চলছে বলেও জানান তিনি। কারণ আইনে থাকায় সেই বিল পাওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা নেই।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘সরকার অতীতে তার কর্মচারীদের কল্যাণের জন্য নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা দিয়েছে। যেমন এখন জুম মিটিং করে। জুম তো আগে চিন্তাতেই ছিল না। জুম মিটিং করলাম তো, সিঙ্গারার পয়সা কেন দেব? জুমের মাধ্যমে কি সিঙ্গারা পাঠাবো!’

তিনি বলেন, ‘প্রকল্পের আওতায় আপ্যায়ন ব্যয় আছে, তার মানেই এই নয় যে অযৌক্তিকভাবে ব্যয় করতে হবে। বিষয়টা আমাদের নজরে এসেছে। আইন সংশোধনের চিন্তাভাবনা চলছে।’

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘পারসেন্টেজ নিয়ে আপনারা যে প্রশ্নগুলো তোলেন, আমরাও ওটা নিয়ে উদ্বিগ্ন। প্রধানমন্ত্রীও উদ্বিগ্ন। তিনি বিভিন্ন সময় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এগুলো নিয়ে আজকে আমরা বৈঠকে আলাপ করেছি।’

করোনা মহামারির মধ্যে অনলাইনে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে জুম সফটওয়ারের মাধ্যমে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন, পরীবিক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) মিটিং করে। যাতে আপ্যায়ন বাবদ ৫৭ লাখ টাকা খরচ দেখানো হয়েছিলো। সে সময় এটা নিয়ে বেশ আলোচনা হয়।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত