বাংলাদেশে ৬৫৮ জন এইডস রোগী শনাক্ত, মারা গেছেন ১৪১ জন

বাংলাদেশে ৬৫৮ জন এইডস রোগী, মৃত্যু ১৪১ জনের
বিশ্ব এইডস দিবস। ছবি: সংগৃহীত

২০২০ সালে নতুন করে বাংলাদেশে ৬৫৮ জন এইডস রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ১৪১ জন। সরকার বিনামূল্যে এইডস রোগীদের চিকিৎসা ও পরীক্ষা ব্যবস্থা চালু রেখেছে। তবে দেশে এইচআইভি-এইডস এখনো প্রবল সমস্যা নয়। সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারলে এই সমস্যা মোকাবেলা করা কঠিন হবে না।

মঙ্গলবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার শিল্পকলা একাডেমীতে বিশ্ব এইডস দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন বক্তারা। স্বাস্থ্য অধিদফতর এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য ছিল ‘বিশ্বের ঐক্য, এইডস প্রতিরোধে সবাই নিব দায়িত্ব’।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের এসটিডি প্রোগ্রামের লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. শামিউল ইসলাম জানান, ২০১৯ সালের নভেম্বর থেকে ২০২০ সালের অক্টোবর পর্যন্ত নতুন শনাক্ত হওয়া ৬৫৮ জন এইডস রোগীর মধ্যে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর রয়েছে ১২৪ জন।

তিনি আরো বলেন, চলতি বছরে মোট শনাক্ত হওয়া ৬৫৮ জনের মধ্যে পুরুষ ৭৬ শতাংশ, নারী ২১ শতাংশ আর তৃতীয় লিঙ্গের রয়েছেন তিন শতাংশ। সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছেন ২৫ থেকে ৪৯ বছরের মধ্যের ব্যক্তিরা।

নতুন শনাক্তের মধ্যে ২৫ থেকে ৪৯ বছরের মধ্যে রয়েছেন ৭৪ দশমিক ২০ শতাংশ, শূন্য থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে রয়েছেন এক দশমিক ৮৮ শতাংশ।

দিবসটি উপলক্ষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, দেশ থেকে এইডস আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে নির্মূল করার লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। বিশ্বের অন্যান্য দেশে যখন এইডস আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা বাড়ছে, তখন আমাদের দেশে এই সংখ্যা ক্রমশ কমে আসছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত