ঢাকা শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২২ °সে


২০২১ সাল থেকে বিদ্যালয়-মাদ্রাসায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক: ডা. দীপু মনি

২০২১ সাল থেকে বিদ্যালয়-মাদ্রাসায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক: ডা. দীপু মনি
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ছবি: সংগৃহীত

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ২০২১ সাল থেকে সকল বিদ্যালয় ও মাদ্রাসায় কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক ভাবে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত একটি প্রাথমিক ধারণা দেয়া হবে এবং নবম-দশম শ্রেণিতে একটি বিষয়ে প্রত্যক ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষাগ্রহণ করতে হবে।

সোমবার বিশ্ব যুব দক্ষতা দিবস ২০১৯ উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য দেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ। স্বাগত বক্তব্য দেন এনএসডিএ এর নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. ফারুক হোসেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে প্রতি বছর ২২ লাখ লোক শ্রমবাজারে প্রবেশ করে, কিন্তু কর্মসংস্থানের জন্য যে পরিমাণ দক্ষতা দরকার তা তাদের নাই। ফলে অধিকাংশই দক্ষতা নিয়ে কর্মবাজারে বা শ্রমবাজারে প্রবেশ করে না। কাজেই তাদের কর্মসংস্থান ঠিকমত হয় না আর দেশের যে পরিমাণ উৎপাদনশীলতা থাকার কথা, অভিষ্ঠ লক্ষ্য অর্জনে যেভাবে এগিয়ে যাওয়ার কথা সেই কাজটিও ব্যহত হচ্ছে।

আর দেশে ও বিদেশের শ্রমবাজারে আমাদের শ্রমশক্তির মান তেমনভাবে গ্রহণযোগ্যতা পায়না। কাজেই আমাদের দেশের বিশাল জনসংখ্যাকে আমরা দক্ষ জনশক্তিতে রুপান্তর করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ২০২৩ সালের মধ্যে দেড় কোটি তরুণের কর্মসংস্থান এর লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন। এই প্রয়োজনীয়তার অনুভব থেকেই জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে পরিণত করতে জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ গঠন করা হয়েছে। দেশে সাধারণ বিদ্যালয়গুলোতেও কারিগরি শিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে। আগামী বছর থেকে ৬৪০টি বিদ্যালয় কারিগরি শিক্ষার অন্তর্ভুক্ত হবে।

আরো পড়ুন: রাষ্ট্রপতির ক্ষমার পরেও জেলে পাঠানো অযৌক্তিক: আপিল বিভাগ

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, কর্মসংস্থানের জন্য শিক্ষিতসহ সকল যুবসমাজই অন্তর্ভুক্ত। এই শিক্ষিত যুবকের শিক্ষাটা কোন কাজে লাগে না যদি বিশেষ কোন দক্ষতা না থাকে। কোন শ্রমিক যদি বিশেষ দক্ষতা অর্জন না করে বিদেশে যায় তাহলে তারা বিদেশে ভালো মূল্য পায় না। যদি বেতন বেশি পেতে হয় সেই ক্ষেত্রে দক্ষতা প্রশিক্ষণ নিয়েই তা অর্জন করতে হয় কারণ আজকের দিনে অদক্ষ কর্মীর মূল্য নেই। বিদেশে যারা যাবে তাদের দক্ষ হয়ে যেতে হবে। বর্তমান সরকার দক্ষতা প্রশিক্ষণের জন্য প্রতি উপজেলায় একটি করে প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান গঠন করবে।

সভাপতির বক্তৃতায় সাজ্জাদুল হাসান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে। দেশের ব্যপক অগ্রগতির জন্য প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছেন। বিগত দশ বছরে দেশের অর্থনৈতির ব্যাপক উন্নতি হয়েছে।

উল্লেখ্য, সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশও যথাযোগ্য মর্যাদায় ১৫ জুলাই বিশ্ব যুব দক্ষতা দিবস ২০১৯ উদযাপিত হয়। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধীন জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (এনএসডিএ) এ উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করে।

ইত্তেফাক/এমআই

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৫ নভেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন