ঢাকা সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬
৩৩ °সে


মারা গেছেন আরো তিন জন

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ২০ শতাংশ কমেছে

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ২০ শতাংশ কমেছে
ফাইল ছবি

সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২০ শতাংশ কমেছে। চলতি বছরের শুরু থেকে গতকাল শনিবার পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ হাজার ৩৯৭ জন। আর চিকিত্সা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮১ হাজার ৯৪২ জন। এ পর্যন্ত ৯৭ শতাংশ মানুষ চিকিত্সা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে। সারাদেশে বর্তমানে মোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ২৫২ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ৯১৭ জন এবং ঢাকার বাহিরে ১ হাজার ৩৩৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ছাড়প্রাপ্ত মোট রোগীর সংখ্যা ৩১৪ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ইমার্জেন্সি অপারেশন্স সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে প্রাপ্ত প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

এদিকে ডেঙ্গু জ্বরে আরো তিন রোগী মারা গেছেন। শুক্রবার রাত সোয়া ৯টায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পারভীন বেগম (৩৫) নামে এক ডেঙ্গু রোগী মারা গেছেন। তার বাড়ি বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার তেতলা গ্রামে। তার স্বামীর নাম মো. ফায়জুল হক। এ নিয়ে এই হাসপাতালে মোট ৯ জন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হলো। ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূ ফাতেমা আক্তার (৬৫) নামে এক জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে এ পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৭ জন। কুষ্টিয়ায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে কলেজ ছাত্র তারেক আহমেদ মারা গেছেন। শনিবার সকালে উন্নত চিকিত্সার জন্য রাজশাহী নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

আরো পড়ুন: দুর্নীতির দায় নিয়ে সরকারের পদত্যাগ আহ্বান বিএনপির স্থায়ী কমিটির

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় (২০ সেপ্টম্বর সকাল ৮টা থেকে ২১ সেপ্টম্বর সকাল ৮টা) পর্যন্ত নতুন করে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৪০৮ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ১৩৫ জন এবং ঢাকার বাহিরে ২৭৩ জন। এ যাবত্ ডেঙ্গুজ্বরে ৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৩৫, মিটফোর্ড হাসপাতালে ১৭, ঢাকা শিশু হাসপাতালে ২, শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ১৫, বিএসএমএমইউতে ২, রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে ১ জন, মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১২, সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১৩ জন এবং কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ২ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে (ঢাকা শহর ব্যতীত) ৬৭ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ২৬ জন, খুলনা বিভাগে ১০০ জন, রংপুর বিভাগে ৮ জন, রাজশাহী বিভাগে ১৭ জন, বরিশাল বিভাগে ৫১ জন, সিলেট বিভাগে ২ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ২ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী ভর্তি হন।

ডেঙ্গু মোকাবিলায় আলাদা পরিকল্পনা দুই সিটির ডেঙ্গু মোকাবিলায় একই লক্ষ্য একই উদ্দেশ্যে আলাদাভাবে নিজেদের দীর্ঘ মেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন। তবুও সমন্বয় হয়নি বিভক্ত দুই ঢাকার নগর কর্তৃপক্ষের। আর এজন্য মেয়রদের আন্তরিকতার অভাবকেই দুষছেন বিশেষজ্ঞরা। সেক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মশাবাহিত রোগ নিয়ন্ত্রণে গঠিত নতুন কমিটি তাদের একই প্লাটফর্মে নিয়ে আসতে পারে বলে আশা সংশ্লিষ্টদের।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন